ঢাকা, সোমবার 30 March 2020, ১৬ চৈত্র ১৪২৬, ৪ শাবান ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

সাবেক ইউএনডিপি প্রধানের বিরুদ্ধে মামলার সুপারিশ

অনলাইন ডেস্ক : বাংলাদেশে জাতিসংঘ উন্নয়ন সংস্থার (ইউএনডিপি) সাবেক এক প্রধানকে শুল্ক ফাঁকি ও অর্থ পাচারের অপরাধে অভিযুক্ত করে তার বিরুদ্ধে মামলার সুপারিশ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের একটি তদন্ত কমিটি।

ইউএনডিপি-র ওই কর্মকর্তার নাম স্টিফেন প্রিজনার বলে জানিয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

তাঁর বিদেশী কূটনীতিক বা 'প্রিভিলেজড পার্সন' সুবিধায় আনা একটি দামী গাড়ি গত ২৮শে নভেম্বর উত্তরার একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার করেছিলো শুল্ক গোয়েন্দারা।

পরে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের যুগ্ম পরিচালক মোহাম্মদ সফিউর রহমানের নেতৃত্বে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

সে কমিটি তদন্ত শেষে আজ মিস্টার প্রিজনারের বিরুদ্ধে মামলার সুপারিশ করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে মিস্টার প্রিজনার শুল্কমুক্ত সুবিধার অপব্যবহারের সাথে জড়িত ছিলেন মর্মে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

মিৎসুবিসি পাজেরো। জাতিসংঘ কর্মকর্তার বিক্রি করে যাওয়া এরকম একটি গাড়ি আটক করেছিলো শুল্ক গোয়েন্দারা

তাঁর বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত ব্যবহারের শুল্কমুক্ত সুবিধার গাড়ি অবৈধভাবে নন-প্রিভিলেজড ব্যক্তির কাছে হস্তান্তর এবং এর মাধ্যমে অনৈতিক আর্থিক লেনদেনের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।

ব্যক্তিগত লাভের উদ্দেশ্যে গাড়িটির বিক্রয় প্রক্রিয়া ও এ সংক্রান্ত লেনদেনের অর্থ বাংলাদেশের বাইরে অবস্থিত বিদেশি ব্যাংকের মাধ্যমে ব্যবস্থিত হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, যা মানি লন্ডারিং সংক্রান্ত অপরাধ হিসেবে বিবেচ্য। 

মিস্টার প্রিজনারের এই কার্যক্রম শুল্ক আইন ও মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হওয়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের সুপারিশ করা হয়।

একইসাথে ইউএনডিপি এর নিউইয়র্কস্থ সদর দপ্তরে অভিযোগ বিবরণী প্রেরণেরও সুপারিশ করা হয়।

ইউএনডিপি কে তাদের অনুসৃত নিজস্ব সুশাসনের নীতির আলোকে মি. প্রিজনারের বিরুদ্ধে আইনানুগ ও শৃঙ্খলাজনিত ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে এই তদন্ত প্রতিবেদনের সুপারিশে। সূত্র: বিবিসি বাংলা। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ