ঢাকা, শনিবার 13 May 2017, ৩০ বৈশাখ ১৪২৩, ১৬ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পবিত্র লাইলাতুল বারাত পালিত

স্টাফ রিপোর্টার : ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মাধ্যমে ইবাদত-বন্দেগী, জিকির-আজকার, নফল নামায আদায়, মিলাদ মাহফিল ও কুরআন তিলাওয়াতের মধ্য দিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে পালিত হয়েছে পবিত্র লাইলতুল বরাত। মহান আল্লাহর সন্তুষ্টির প্রত্যাশায় সন্ধ্যা থেকেই মসজিদগুলোতে ইবাদত-বন্দেগীতে শামিল হতে ভিড় জমান ছোট-বড় নানা বয়সের ধর্মপ্রাণ মুসলমান। অতীতের কৃত পাপের জন্য সবাই ক্ষমা প্রার্থনা করেন। পাশাপাশি আগামী দিনে সৎভাবে জীবন-যাপন করার জন্য আল্লাহর রহমত কামনা করেন।

দেশের মানুষ সামাজিক প্রথা অনুযায়ী আত্মীয় ও প্রতিবেশীদের বাড়িতে হালুয়া-রুটি পাঠান। 

প্রসঙ্গত, মুসলমানদের জন্য আরবি শা’বান মাসের ১৫ তারিখ পবিত্র শব-ই-বরাত বা লাইলাতুল বরাত মহিমান্বিত রজনী। গভীর তাৎপর্যপূর্ণ এ রাতের বিশেষ বরকত হাসিলের উদ্দেশ্যে বিশ্বজুড়ে মুসলমান সম্প্রদায় রাত জেগে ইবাদত-বন্দেগী, জিকির-আজকার, মিলাদ-মাহফিল, নফল নামায আদায় ও কুরআন তিলাওয়াতে মশগুল থাকেন।

এ রাতের ফজিলত সম্পর্কে আরো বলা হয়েছে, বরকতময় এ রাতে মুমিনদের প্রতি আল্লাহর বিশেষ অনুগ্রহ বর্ষিত হয়। গত বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীসহ সারা দেশে বিভিন্ন মসজিদে বিশেষ ওয়াজ-মাহফিল ও জিকির-আজকার অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সংগঠন আলোচনা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে রাতে ওয়াজ মাহফিল, কুরআন তিলাওয়াত, হামদ, নাত, জিকির, মিলাদ, কিয়াম ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। এশার নামাযের পর থেকে ওলামাগণ রাতভর বয়ান করেন। বাসাবাড়ি ছাড়াও মসজিদে মসজিদে রাতভর চলছে নফল নামায, পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত, ওয়াজ মাহফিল, অন্যান্য এবাদত-বন্দেগী ও মোনাজাত। 

পবিত্র লাইলাতুল বরাত উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির উদ্দেশে পৃথক বাণী দিয়েছেন। এ উপলক্ষে তারা দেশবাসীসহ সমগ্র মুসলিম উম্মাহকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন। এছাড়া বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া পৃথক বাণী দিয়েছেন।

লাইলাতুল বরাত উপলক্ষে শুক্রবার ছিল সরকারি ছুটি। আর বৃহস্পতিবার সংবাদপত্রসমূহে ছুটি পালিত হওয়ায় গতকাল শুক্রবার বাংলাদেশের পত্রিকাসমূহ প্রকাশিত হয়নি। এ উপলক্ষে বিভিন্ন টেলিভিশন ও বেতার বিশেষ অনুষ্ঠান প্রচার করেছে এবং পত্র-পত্রিকা বিশেষ নিবন্ধ প্রকাশ করেছে।

খুলনায় পবিত্র লায়লাতুল বরাত পালিত

খুলনা অফিস : যথাযথ ধর্মীয় ভাবগম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে খুলনায় পবিত্র লায়লাতুল বরাত পালিত হয়েছে। পুণ্যময় এ রাতে আল্লাহ তায়ালার রহমত লাভের জন্য মসজিদে মসজিদে প্রার্থনা করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। এ সব মুসল্লির ভিড়ে অনেক মসজিদে তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না। মসজিদে মসজিদে এই ভিড় ফজর পর্যন্ত অব্যাহত ছিল। তবে হঠাৎ করে কাল বৈশাখী ঝড় ও বৃষ্টি হওয়ায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৮ টার পর থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত কিছুটা বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়েছে মুসল্লিদের। মুসল্লিরা নফল নামায, কুরআন তেলাওয়াত, তাসবিদ-তাহলীল, জিকির-আসকার ওয়াজ ও দোয়া মাহফিলসহ ইবাদত বন্দেগীর মধ্য দিয়ে সৌভাগ্যের এই রজনী পালন করেছেন। এই পবিত্র রাতে মুসলমানরা পিতা-মাতা, আত্মীয়-স্বজনসহ প্রিয়জনদের কবর জিয়ারত করেছেন। মহিমান্বিত এ রজনীতে মুসলিম উম্মাহর সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত ও দোয়া খায়ের অনুষ্ঠিত হয়েছে। একই সঙ্গে অনেক মসজিদে মিলাদের পর তাবারক বিতারণ করা হয়েছে। ফজরের নামাযের পর দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়েছে লায়লাতুর বরাতের আনুষ্ঠানিকতা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ