ঢাকা, শনিবার 13 May 2017, ৩০ বৈশাখ ১৪২৩, ১৬ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আল্লামা সাঈদী রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার -শিবির সভাপতি

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত বলেন, আল্লামা সাঈদীকে অন্যায়ভাবে কারাগারে আটক রেখে দেশের মানুষকে কুরআনের দাওয়াত থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। তিনি রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। কুরআনের দাওয়াত ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন বলেই আল্লামা সাঈদীকে হত্যা করতে চাইছে সরকার। 

গতকাল শুক্রবার কুমিল্লার এক মিলনায়তনে ছাত্রশিবির কুমিল্লা মহানগরী শাখা ঐতিহাসিক কুরআন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত মেধাবী ছাত্রদের মাঝে কুরআন বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

শিবির সভাপতি বলেন, আল্লামা সাঈদী শুধু বাংলাদেশে নয় বরং সারা বিশ্বে যারা কুরআনের আলো ছড়িয়ে দিয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম। এদেশের ধর্ম, বর্ণ, দল, মত নির্বিশেষে সবাই আল্লামা সাঈদীকে ভালবাসে। তিনি তার সারা জীবন কুরআনের খেদমত করে কাটিয়ে দিয়েছেন। শুধু পড়া নয় বরং কুরআনের আলোকে মানুষের সার্বিক জীবন পরিচালনার মাধ্যমে দুনিয়া ও আখিরাতে সফল হওয়ার তিনি আহ্বান করেছেন। রাষ্ট্রীয়ভাবে কুরআন প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে তিনি সিপাহসালার। আর এ কারণে আদর্শহীন ইসলাম বিরোধী বাতিল শক্তির চক্ষুশূলে পরিণত হয়েছেন তিনি। রাষ্ট্রীয় শক্তিকে অপব্যবহার করে তার উপর জুলুম করা হচ্ছে। তার কণ্ঠকে স্তব্ধ করে দিয়ে কুরআনের দাওয়াত থেকে মানুষকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। তাতেও সরকারের প্রতিহিংসা না মিটায় এখন তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে। কিন্তু তার উপর কোন জুলুম দেশাবাসী সহ্য করবে না। পবিত্র রমযানের আগেই দেশবাসী কুরআনের পাখি আল্লামা সাঈদীকে মুক্ত অবস্থায় কুরআনের ময়দানে দেখতে চায়। 

তিনি উপস্থিত ছাত্রদের উদ্দেশে বলেন, ১৯৮৫ সালের ১১ মে কলকাতার হাইকোর্টে কুরআন বাজেয়াপ্ত করার ঘটনায় তৌহিদী জনতা যেমন বুকের তাজা রক্ত দিয়ে তা প্রতিরোধ করছিল। ঠিক তেমনি কুরআনের পাখি আল্লামা সাঈদীর জন্যও এদেশের মানুষ রক্ত দিতে প্রস্তুত। কারণ, আল্লামা সাঈদী শুধু কোন দলের নেতা নন বরং তিনি ইসলামপ্রিয় ছাত্রজনতার প্রাণপ্রিয় মানুষ। অতীতে তার উপর জুলুম দেশবাসী বরদাশত করে নি। তাই মৃত্যুদণ্ডের রায়ের পর সারা দেশের আপামর জনতা রাজপথে নেমে এসেছিল। নারী, শিশু, বৃদ্ধসহ একদিনেই ৭০ জনের অধিক মানুষ জীবন দিয়ে প্রমাণ করেছে আল্লামা সাঈদী বাংলার গণমানুষের প্রাণপ্রিয় নেতা। সুতরাং সরকার যদি আল্লামা সাঈদীর ব্যাপারে কোন হটকারী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে তাহলে দেশের মানুষকে আর নিবারণ করা যাবে না। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ