ঢাকা, শনিবার 13 May 2017, ৩০ বৈশাখ ১৪২৩, ১৬ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

স্পষ্ট বক্তব্যের কারণে তিনি সরকারের টার্গেট হয়েছেন

গতকাল শুক্রবার দুপুরে পূর্ব লন্ডনের আলতাব আলী পার্কে ফ্রি সাঈদী ফেডারেশন ইউকের উদ্যোগে বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়

মুহাম্মদ নূরে আলম বরষণ, লন্ডন থেকে : বিশ্ববরেণ্য মুফাস্সিরে কুরআন, আল্লামা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদী’র মুক্তি দাবি জানিয়েছেন ব্রিটেনের আলেম-ওলামা, মানবাধিকার কর্মী ও ইসলামপ্রিয় সাধারণ জনতা। তারা বিশ্ববরেণ্য এ আলেমে দ্বীনের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে গতকাল শুক্রবার দুপুরে পূর্ব লন্ডনের আলতাব আলী পার্কে বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ করে। ফ্রি সাঈদী ফেডারেশন ইউকের উদ্যোগে ফেডারেশনের সেক্রেটারি আক্তার হোসাইন কাওসারের সভাপতিত্বে এবং এডভোকেট মোহাম্মদ মহিব্বুল্লাহর পরিচালনায় এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সেইভ বাংলাদেশ ইউকের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট আইনজীবী ব্যারিস্টার নজরুল ইসলাম, স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফেডারেশনের জয়েন্ট সেক্রেটারি মাওলানা আশরাফুল ইসলাম। 

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যথাক্রমে সাবেক ছাত্র নেতা ব্যারিস্টার বদরে আলম দিদার, মাওলানা আবুল হাসানাত চৌধুরী, শিক্ষাবিদ ড: সৈয়দ মামনুন মোরশেদ, ব্যারিস্টার মিসবাহুল রহমান, ব্যারিস্টার সরওয়ার কামাল, ফরিদুল ইসলাম, কমিউনিটি নেতা মো: নুর বক্স, মাওলানা শামিম আহমেদ, মাওলানা সৈয়দ জামাল আহমেদ, মাওলানা নাছির উদ্দিন, সাবেক ছাত্র নেতা শহিদুল ইসলাম, মোহাম্মাদ মহিব্বুল্লাহ, কাজী এমদাদুল হক, মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, হাবীবুর রহমান ফুয়াদ, মো: জাকির হোসাইন, মো: হান্নান প্রমুখ।

সভায় ব্যারিস্টার নজরুল ইসলাম আল্লামা সাঈদীর মুক্তির দাবি জানিয়ে বলেছেন, ‘সাঈদী’ নিরপরাধ। শুধুমাত্র জামায়াতে ইসলামীর সাথে সম্পৃক্ত থাকা এবং স্পষ্টবাদী বক্তব্যের কারণে তিনি জালেম সরকারের টার্গেট হয়েছেন। স্বাধীনতার ৪৫ বছর পর অন্য একজন ‘দৈউল্যা’ সিকদারের অপরাধের দায় নিরাপরাধ মাওলানা সাঈদীর উপর চাপিয়ে তাঁকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার।

ব্যারিস্টার বদরে আলম দিদার আল্লামা দেলোয়ার হোসাইন সাঈদীর বিরুদ্ধে রায় প্রদানের পর প্রতিবাদী ছাত্র-জনতা আলেম-ওলামার উপর সরকারী দলের সন্ত্রাসী ও পুলিশ বাহিনীর হত্যাযজ্ঞের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতির ইতিহাসে এ রকম নৃসংশ বর্বর গণহত্যা এই প্রথম।

বক্তারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের শুরুতে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী বাংলাদেশের মুক্তিকামী রাতের অন্ধকারে হামলা চালিয়ে হত্যা করেছিলো। আর বাকশালী আওয়ামীলীগ প্রকাশ্য দিবালোকে পাখির মতো মানুষ হত্যা করছে। বক্তারা সরকারকে কঠোর ভাষায় হুশিয়ারী দিয়ে বলেন, জনতার দাবি না মানলে এমন আন্দোলন শুরু হবে যে, তোমাদের পরিণতি ভালো হবে না।

বক্তারা আল্লামা সাঈদীকে ইসলামী আন্দোলনের নির্ভিক সিপাহসালার উল্লেখ করে বলেন, অর্ধশতাব্দী ধরে যিনি মানবতার পক্ষে কুরআনের মাধ্যমে মানুষকে আহ্বান করেছেন, সেই সাঈদীকে হত্যার ষড়যন্ত্র বুকের রক্ত দিয়ে প্রতিরোধ করা হবে। একশো কেন আমরা লাখো লাখো জীবন দিতে প্রস্তুত। ইসলাম বিরোধী আওয়ামীলীগকে আমরা প্রতিরোধ করবোই।5

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ