ঢাকা, বৃহস্পতিবার 18 May 2017, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২১ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের সময় আগামী ১৫ জুন

 

# বড়পুকুরিয়া খনি মামলার অভিযোগ গঠন ১০ জুলাই

স্টাফ রিপোর্টার : মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে মন্তব্যের মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ১৫ জুন দিন ধার্য করেছেন আদালত।

গতকাল বুধবার ঢাকার মহানগর হাকিম এস এম মাসুদ জামানের আদালতে এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ধার্য ছিল। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতে প্রতিবেদন দাখিল না করায় বিচারক নতুন করে এ দিন দিয়েছেন।

গত বছরের ৫ জানুয়ারি শহীদের সংখ্যা নিয়ে বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে খালেদা জিয়া ও গয়েশ্বর চন্দ্রের বিরুদ্ধে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের (সিএমএম) আদালতে মামলাটি করেন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী। পরবর্তী সময়ে সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারক শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

এদিকে, বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি দুর্নীতি মামলার অভিযোগ গঠনের শুনানি পিছিয়েছে। আগামী ১০ জুলাই এ মামলার পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন আদালত।

গতকাল ঢাকার ২ নম্বর বিশেষ জজ হোসনে আরা বেগম এই দিন নির্ধারণ করেন। ওই আদালতে অভিযোগ গঠনের জন্য দিন নির্ধারিত ছিল গতকাল। কিন্তু আসামীপক্ষের আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া অভিযোগ গঠনের শুনানি পেছানোর জন্য সময়ের আবেদন করেন। সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে নতুন দিন নির্ধারণ করেন।

মামলার আসামীরা হলেন খালেদা জিয়া, সাবেক স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ড.খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সাবেক কৃষিমন্ত্রী এম কে আনোয়ার, সাবেক তথ্যমন্ত্রী এম শামসুল ইসলাম, মো. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী অবসরপ্রাপ্ত এয়ার ভাইস মার্শাল আলতাফ হোসেন চৌধুরী, হোসাফ গ্রুপের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন, সাবেক জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ সচিব নজরুল ইসলাম, পেট্রোবাংলার সাবেক পরিচালক মুঈনুল আহসান, সাবেক জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী এ কে এম মোশাররফ হোসেন এবং সাবেক ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী ব্যারিস্টার মো. আমিনুল হক।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ