ঢাকা, সোমবার 29 May 2017, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৩, ২ রমযান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পাবনায় ভাঙচুরের মামলায় মন্ত্রীপুত্র গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক: পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর ছেলে ও ঈশ্বরদী উপজেলা যুবলীগ সভাপতি শিরহান শরীফ তমালসহ ১১ ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার ভোররাতে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) যৌথ বাহিনীর এক অভিযানে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর সঙ্গে তাঁর জামাই ঈশ্বরদীর পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টুর কয়েক দিন ধরে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে ভূমিমন্ত্রীর ছেলে তমাল ও  উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রাজীব সরকারের নেতৃত্বে ১০-১৫ জনের একটি দল ঈশ্বরদী পৌর সদরে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালায়। এ সময় মিন্টুর মিষ্টির দোকানেও ভাঙচুর চালানো হয়।

একই সময়ে হামলাকারীরা মিন্টু সমর্থিত উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাড়িতেও ভাঙচুর চালায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে জুবায়েরের মা আহত হন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল হাই তালুকদার জানান, হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাসের বাবা মুক্তিযোদ্ধা আতিয়ার বিশ্বাস  বৃহস্পতিবার রাতে বাদী হয়ে ঈশ্বরদী থানায় একটি মামলা করেন। মামলায় ভূমিমন্ত্রীর ছেলে তমালকে প্রথম ও যুবলীগ নেতা রাজীব সরকারকে দ্বিতীয় আসামি করা হয়।

ওসি আবদুল হাই আরো জানান,  বৃহস্পতিবার রাতেই অভিযানে নামে ঈশ্বরদী ও পাবনা  পুলিশের ডিবির একটি যৌথ দল। বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে হামলার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে তমালসহ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তমাল ছাড়া আসামিদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।-এনটিভিবিডি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ