ঢাকা, রবিবার 21 May 2017, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২৪ শাবান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজধানীতে কিশোর খুন

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে জাহিদুল ইসলাম (১৫) নামের এক কিশোর দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছে। শুক্রবার রাত ১০টার দিকে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডেকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়ার পর রাত ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মৃত জাহিদের পরিচিত ইমন জানান, যাত্রাবাড়ী কাজলা পেট্রোল পাম্প ছনটেক এলাকার রাস্তায় আহতাবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে জাহিদকে উদ্ধার করে ঢামেকে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জাহিদের চাচাতো ভাই মো. আইয়ুব আলী জানান, তারা যাত্রাবাড়ী ছনটেক এলাকায় থাকেন। স্থানীয় একটি ফ্যান কারখানায় চাকরি করতো জাহিদ। কেন বা কারা তাকে হত্যা করেছে তা তিনি জানাতে পারেননি। জাহিদ পটুয়াখালির গলাচিপা উপজেলার ফোরকান হাওলাদারেরর সন্তান । যাত্রাবাড়ীর থানার ওসি আনিসুর রহমান বলেছেন, ‘জাহিদের মৃত্যু সংবাদ আমরা পেয়েছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

ভবন থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনে কাজ করার সময় ভবন থেকে পড়ে এলাহী বক্স (১৯) নামে এক শ্রমিক মারা গেছেন। গতকাল শনিবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার সদর উপজেলায়।

এলাহী বক্সের সহকর্মী বদরুজ্জমান জানান, ঢাবির কলা ভবনের ৬ তলায় কাজ করছিল এলাহী। হঠাৎ সেখান থেকে সে পড়ে যায়। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পৌনে ১টায় মারা যায়।

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে রাখা হয়েছে।

গুলিতে দোকান কর্মচারী আহত

ওয়ারী থানা এলাকার নবাবপুরে মুখোশধারী দুর্বৃত্তের গুলিতে মো. সেলিম মিয়া (৪৫) নামের এক হার্ডওয়ার কর্মচারী আহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে নবাবপুরের ১/২ নম্বর সিটি হার্ডওয়ারে এ ঘটনা ঘটে।

দোকান মালিক শহিদুল্লার চাচাত ভাই সাইদুল ইসলাম জানান, বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে চারজন মুখোশধারী দোকানে ঢুকে শহিদুল্লার সঙ্গে তর্ক-বিতর্ক করতে থাকে। বিষয়টি দেখে দোকান কর্মচারীদের সন্দেহ হয়। পরে তারা সবাই মিলে ‘ধর ধর’ বলে ধাওয়া দেয়। ধাওয়া খেয়ে তারা পালিয়ে যাওয়ার সময় পাঁচ রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এর একটি সেলিম মিয়ার পেটের ডান অংশে লাগে। পরে আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হসাপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, আহত সেলিম মিয়াকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় অবহিত করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ