ঢাকা, বুধবার 31 May 2017, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২8, ৪ রমযান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সড়ক দুর্ঘটনা: হতাহত ১২

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা: কুষ্টিয়ার মিরপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছেন। এসব সড়ক দুর্ঘটনায় অন্তত ৬ জন আহত হয়েছেন।
মিরপুর থানা পুলিশের ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, রাতে কুষ্টিয়া-পাবনা মহাসড়কের তালবাড়িয়া পুলিশ ক্যাম্পের সামনে শৈলকুপা থেকে ছেড়ে ঢাকা অভিমুখী কুষ্টিয়া এক্সপ্রেস নামের একটি বাস মালবাহী ট্রাকের পিছনে সজরে ধাক্কা দিলে রাস্তায় ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই বাসের সুপারভাইজারের মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হন আরো ৬ জন। আহতরা হলেন ঝিনাইদহের শৈলকুপা কবিরপুরের শাহেদ (৩৫), সাতক্ষীরার শ্যাম নগর গাবুরা গ্রামের রহমান আলী (৪৫), কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাতীয়া গ্রামের হাওয়া খাতুন (৬০), রাজবাড়ী পাংশা সেনগ্রামের হেলাল মন্ডল হেলপার (৩৫), সদর উপজেলার বেলঘড়িয়ার মমতাজ খাতুন (৪৫), মিরপুর উপজেলার বহলবাড়ীয়ার ইউসুফ আলী (৪০)।
এদিকে রবিবার সকাল ৯টার দিকে কুষ্টিয়া-মেহেরপুর মহাসড়কের বিজিবি ক্যাম্পের সামনে শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস মিরপুরগামী একটি অটোবাইককে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে অটোবাইকে থাকা মাছ ব্যবসায়ী নির্মল মন্ডল রাস্তায় ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। অপরদিকে কুষ্টিয়া-মেহেরপুর মহাসড়কের গোবিন্দপুর এলাকায় রাস্তা পার হবার সময় দ্রুতগামী বাসের ধাক্কায় অজ্ঞাতনামা এক ভিক্ষুক নিহত হয়।
কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার তাপস কুমার সরকার জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় আহতদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
নেত্রকোনা সংবাদদাতা: নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার রংছাতী ইউনিয়নের সন্ন্যাসীপাড়া নামক স্থানে গত রবিবার সকালে লড়ি চাপায় হোসেন মিয়া (৭) নামে এক শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। নিহত হোসেন সন্ন্যাসীপাড়া গ্রামের রবি মিয়ার পুত্র। সে স্থানীয় মৌতলা কিন্ডার গার্টেন স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র।
এলাকাবাসীর অভিযোগ, এলাকার কতিপয় প্রভাবশালী ব্যাক্তি ক্ষমতাসীন দলের নাম ভাঙ্গিয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করে ভারতীয় সীমান্তবর্তী মহাদেও নদী থেকে অবৈধ ভাবে অবাধে বালু উত্তোলন করে রমরমা বালুর ব্যবসা করে আসছে। গতকাল রবিবার মহাদেও নদী থেকে বালু বোঝাই করে একটি লড়ি সীমান্তবর্তী পাতলাবন-কলমাকান্দা সড়ক দিয়ে যাওয়ার পথে সকাল ৯টার দিকে সন্ন্যাসীপাড়ায় রবি মিয়ার বাড়ীর সামনে খেলারত হোসেন মিয়াকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই হোসেন মিয়ার মৃত্যু হয়। এ সময় স্থানীয় লোকজন লড়িটিকে আটকাতে সক্ষম হলেও চালক পালিয়ে যায়। 
ফটিকছড়ি: চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়কের ফটিকছড়ির বারৈয়ারহাট আনন্দ কমিউনিটি সেন্টার সংলগ্ন এলাকায় রবিবার সকালে বাস দূর্ঘটনায় রেজাউল করিম রাফি (১৪) নামে এক স্কুল ছাত্র নিহত হয়েছে।  ঐ সময় শান্তি পরিবহনের একটি বাস (ঢাকামেট্রো-ব-১৪-২৪৯৯) দ্রুত গতিতে চট্টগ্রাম থেকে খাগড়াছড়ি যাওয়ার পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে ছিটকে পড়লে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত রেজাউল করিম রাফি স্থানীয় ধুরুং খুলশী উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনির ছাত্র। সে কুড়িগ্রামের নুরুল ইসলামের পুত্র। তার বাবা এক এনজিও কর্মকর্তা বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে ফটিকছড়ি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছ্।
তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ): হাটিকুমরুল-বনপাড়া মহা সড়কে দুর্ঘটনায় একজন নিহত হয়েছে। গত রোববার তাড়াশ অংশের মান্নান নগর এর পার্শে সেমার্স সমবয় ফিলিং তেল পাম্পের নিকটে   ঘটনাটি ঘটে।
জানা গেছে, রাজশাহী গামী তেলবাহী একটি লরির সাথে বিপরীত দিক থেকে আসা প্রাণ কোম্পানীর পণ্যবাহী একটি কাভার্ট ভ্যানের মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। এ সময় ঘটনা স্থলেই তেলবাহি লড়ির হেলপাড় আসলাম হোসেন (৩৯)  নিহত হয়। এদিকে কয়েকদিন আগে মহাসড়কের মান্নান নগর পাড় হওয়ার পথে তাড়াশের হামকুড়িয়া গ্রামের কাজি উসমান নামে বৃন্ধ মাইক্রোর চাকায় পিষ্ঠ হয়ে নিহত হয়েছে। মহাসড়কে দুঘর্টনা রোধে বেড়েই চলেছে। কারণ হিসেবে জানা যায় অদক্ষ চালকতো আছেই পাশাপাশি মহাসড়কের কোটি কোটি টাকার জায়গা প্রভাশশালীরা দখল করে নিয়েছে। যে কারনে কোন কোন স্থানে গাড়ী পার্কিং করতে দুঘৃনা সংঘটিত হচ্ছে বরৈ অনেকে জানিয়েছেন।
এ ব্যাপারে হাইওয়ে থানা ওসি আব্দুল কাদের জিলানী বলেন, মুখোমুখি সংঘর্ষে তেলবাহী লরির হেলপার ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ