ঢাকা, বুধবার 31 May 2017, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২8, ৪ রমযান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজধানীসহ সারাদেশে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত

শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার তার মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে মুনাযাত করেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াসহ নেতৃবৃন্দ -সংগ্রাম

 

স্টাফ রিপোর্টার : মিলাদ মাহফিল, দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য ও বস্ত্র বিতরণাসহ ব্যাপক ভাবগম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে রাজধানীসহ সারাদেশে পালিত হয়েছে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাত বার্ষিকী। দিবসটি উপলক্ষে দলের চেযারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া বিএনপির প্রতিষ্ঠাতার মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এছাড়া কবর প্রাঙ্গণে ওলামা দল আয়োজিত মিলাদ মাহফিলে অংশ নেন। এছাড়া রাজধানীর বেশকিছু স্পটে তিনি দরিদ্রদের মাঝে খাবার ও বস্ত্র বিতরণ করেন। দিনটিকে স্মরণ করে ছাত্রদল জাতীয় প্রেস ক্লাবে আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করে। এছাড়া জিয়াউর রহমানের অবদানের কথা স্মরণ করে জাতীয় দৈনিকগুলো বিশেষ কোড়পত্র বের করে। 

খালেদা জিয়ার শ্রদ্ধা: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে তার মাজারে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টায় দলের জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে নিয়ে স্বামীর কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন খালেদা জিয়া। এ সময় বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা বুকে কালো ব্যাজ লাগিয়ে নীরবে দাঁড়িয়ে থেকে মরহুম নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানান। পরে তার রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেনখালেদা জিয়া।

জিয়াউর রহমান ১৯৮১ সালের এই দিনে চট্টগ্রামে একদল সেনা কর্মকর্তার হাতে শহীদ হন। বিএনপি এ দিনটি তার ‘শাহাদত দিবস’হিসেবে পালন করে। জিয়াউর রহমান সামরিক বাহিনীতে থাকা অবস্থায় ১৯৭৮ সালে তার তত্ত্বাবধানেই বিএনপি প্রতিষ্ঠা হয়।

জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় খালেদা জিয়ার সঙ্গে ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, বেগম সেলিমা রহমান, রুহুল আলম চৌধুরী ও এজেডএম জাহিদ হোসেন। কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে ছিলেন হাবিবুর রহমান হাবিব, ফরহাদ হোসেন ডোনার, হাবিব উন নবী খান সোহেল, ফজলুল হক মিলন, হাবিবুল ইসলাম হাবিব, আমিনুল হক এবং অঙ্গসংগঠনের সাইফুল আলম নিরব, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, মোরতাজুল করীম বাদরু, শফিউল বারী বাবু, মুন্সি বজলুল বাসিত আনজু ও কাজী আবুল বাশার প্রমুখ।

বিএনপি ছাড়াও জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল, যুবদল, কৃষকদল, স্বেচ্ছাসেবকদল, মহিলা দল, তাঁতীদল, মৎস্যজীবী দল, ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন, সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ, এম-ট্যাব ও জাগপাসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানানো হয়।

পোশাক ও খাবার বিতরণ : জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর দুঃস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ করেন খালেদা জিয়া। বেলা ১২টার দিকে ধানমন্ডির সুগন্ধা কমিউনিটি সেন্টারে মহানগর বিএনপির আয়োজনে পোশাক ও খাবার বিতরণ করেন খালেদা জিয়া। তার সঙ্গে ছিলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির ঢাকা দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানী ও শামা ওবায়েদ।

সেখান থেকে বিএনপি চেয়ারপার্সন মোহাম্মদপুর টাউন হল, ধানমন্ডি, কলাবাগান, আজিমপুর, নবাবপুর, নয়াবাজার, সূত্রাপুর, দয়াগঞ্জ, শ্যামপুর, জুরাইন, ধোলাইখাল বাসস্ট্যান্ড, খিলগাঁও, কমলাপুর, শাহজাহানপুর, মতিঝিল, নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়, বিজয়নগর ও হাতিরপুলের বিভিন্ন স্থানে দুঃস্থদের মধ্যে পোশাক ও খাবার বিতরণ করেন। কর্মসূচির দ্বিতীয় দিন বুধবার রাজধানীর ১৬টি স্থানে পোশাক ও খাবার বিতরণ করার কথা রয়েছে বিএনপি চেয়ারপার্সনের।

আলোকচিত্র প্রদর্শনী: এর আগে সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ছাত্রদলের আয়োজনে জিয়াউর রহমানের উপর আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। জিয়াউর রহমানের ৩৬তম মৃত্যুবার্ষিকীউপলক্ষ্যে বিএনপি ২৭ মে থেকে পক্ষকালের কেন্দ্রীয় কর্মসূচি শুরু করেছে। কেন্দ্রীয়ভাবে বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনগুলো পোস্টার প্রকাশ করেছে। পত্র-পত্রিকায় প্রকাশ করা হয়েছে বিশেষ ক্রোড়পত্র। এদিন নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় এবং গুলশানে চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে দলীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়। উত্তোলন করা হয়েছে কালো পতাকা।

ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প: জিয়াউর রহমানের শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল সকাল ৯টা হতে বিকেল ৪টা পর্যন্ত নয়াপল্টনস্থ বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ করে ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) দেশবরণ্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎকগণ চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন। উক্ত ক্যাম্পে প্রায় ১৩৫০জন রোগীকে চিকিৎসা সেবা ও বিনামূল্যে ঔষধ দেয়া হয়। উক্ত ক্যাম্পের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন- বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।

মিলাদ মাহফিল: জিয়াউর রহমারের রুহের মাগফিরাত কামনায় গতকাল বাদ জোহর দেশের মসজিদ গুলোতে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ জামে মসজিদে বাদ জোহর শহীদ মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করে ড্যাব। এছাড়া অন্যান্য ধর্মাবলাম্বীরাও তার আতœার মাগফিরাত কামনা করে বিশেণ অনুষ্ঠাদি পালন করে। 

সরব বিএনপি: নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারসহ বিভিন্ন দাবিতে ঘরোয়াভাবে নানা কর্মসূচি পালন করলেও অনেকদিন থেকে রাজপথে নেই বিএনপির নেতাকর্মীরা। সম্প্রতি দলের চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে পুলিশি তল্লাশির প্রতিবাদে সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করতে চাইলেও পুলিশের অনুমতি না পাওয়ায় সেই কর্মসূচি ভেস্তে যায়। রাজপথে নামতে না পারায় দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে অনেকটা ঢিমেতাল ভাব ছিল। গতকাল দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে কিছুটা চাঙ্গা হয়ে ওঠার সুযোগ পায় রাজপথে অনেকদিন ‘নিষ্ক্রিয়’ থাকা দলটির নেতাকর্মীরা। গতকালের কর্মসূচিকে ঘিরে তাদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। জিয়াউর রহমানের ৩৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে নেতাদের নিয়ে শেরেবাংলা নগরে অবস্থিত জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান দলটির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। খালেদা আসার আগেই জিয়ার সমাধিতে ঢল নামে বিএনপি ও এর অঙ্গসংঠনের নেতাকর্মীদের। সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপি ও এর অঙ্গ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা খ- খ- মিছিল নিয়ে সমাধি প্রাঙ্গণে জড়ো হতে থাকেন। সংগঠনগুলোর পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে সমাধিস্থলের পাদদেশ। ফুলের শ্রদ্ধা জানানোর পর খালেদা জিয়া দুঃস্থদের মাঝে বস্ত্র ও খাদ্যসামগ্রী বিরতণ করেন। মূলত এই আয়োজনকে কেন্দ্র করে রাজপথে সরব হয়ে ওঠার সুযোগ পায় দলটির হাজারো নেতাকর্মী। মৃত্যুবার্ষিকীতে যোগ দিতে আসা খালেদা জিয়ার গাড়িবহরের সম্মুখভাগে বিশাল মোটরসাইকেলের বহর দেখা গেছে। এই শোডাউনে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের উপস্থিত ছিল সবচেয়ে বেশি।

বগুড়া অফিস : বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বগুড়া জেলা বিএনপির উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার সকালে শহরের নবাববাড়ী রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় জিয়াউর রহমানের জীবনী নিয়ে আলোচনা করেন জেলা সাধারন সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, কেন্দ্রীয় সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শোকরানা, জিয়া পরিষদের জেলা সভাপতি অধ্যাপক ডাক্তার মওদুদ হোসেন আলমগীর পাভেল, মহিলা দলের সভাপতি লাভলী রহমান প্রমুখ। এছাড়া দিবসের অন্যান্য কর্মসূচিতে ছিল দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, শহীদ জিয়ার প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ। শহীদ জিয়ার গ্রামের বাড়িতে গাবতলী উপজেলার বাগবাড়ীতেও বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে স্থানীয় বিএনপি।

খুলনা অফিস : যথাযোগ্য মর্যাদা এবং বিস্তারিত কর্মসূচির মধ্য দিয়ে খুলনায় মহান স্বাধীনতার ঘোষক, আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার, গণতন্ত্র, উন্নয়ন-সমৃদ্ধি ও সততার প্রতীক, বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম এর ৩৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী পালিত হয়েছে। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকল দলীয় কার্যালয়ে দলীয় ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। পাড়ায় মহল্লায় দলীয় কার্যালয়ে কোরআন তেলাওয়াত ও শহীদ জিয়াউর রহমানের ভাষণ প্রচার করা হয়। সকালে ১১ টায় কে ডি ঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া নগরীর সকল মসজিদে মাগরিবের পূর্বে স্ব স্ব ওয়ার্ড বিএপির উদ্যোগে দোয়া এবং ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দিবসটি উপলক্ষে খুলনা মহানগর বিএনপি বিশেষ পোস্টার প্রকাশ করে। নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে নির্মাণ করা হয়েছে ১২টির অধিক তোরণ। জিয়াউর রহমানের বর্ণাঢ্য ও কর্মময় জীবনের বিবরনী সম্বলিত লিফলেট প্রকাশ করা হয়। 

দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। আসাদুজ্জামান মুরাদের পরিচালনায় শোক সভায় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন কেসিসির মেয়র মনিরুজ্জামান মনি, কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, শেখ মোশারফ হোসেন, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, জলিল খান কালাম, শেখ খায়রুজ্জামান খোকা, সিরাজুল ইসলাম, কাজী মোঃ রাশেদ, শাহজালাল বাবলু, রেহানা ঈসা প্রমুখ।

গাজীপুর সংবাদদাতা : নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গাজীপুরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সকালে শহরের দলীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ, কোরআনখানি, আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল ও এতিম দুঃস্থদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গাজীপুর পৌর বিএনপির উদ্যোগে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক এমপি ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা হাসান উদ্দিন সরকার। পৌর বিএনপির সভাপতি মীর হালীমুজ্জামান ননীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী ছাইয়েদুল আলম বাবুল, বিএনপি নেতা আফজাল হোসেন কায়সার, আহমদ আলী রুশদী, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মোঃ সোহরাব উদ্দিন, বিএনপি নেতা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ইজাদুর রহমান মিলন, ড. শহীদুজ্জামান, সাখাওয়াৎ হোসেন সবুজ, সাখাওয়াৎ হোসেন সেলিম, অ্যাডভোকেট মনির হোসেন, সাবেক ভিপি জয়নাল আবেদীন তালুকদার, নাহীন আহমেদ মমতাজী, সাবেক ছাত্রদল নেতা হুমায়ুন কবীর রাজু, মুক্তিযোদ্ধা দল নেতা আব্দুস সামাদ মোল্লা, ছাত্রদল নেতা নূরে আলম, যুবদল নেতা জাহাঙ্গীর হাজারী প্রমুখ। পরে হাসান উদ্দিন সরকারের পক্ষ থেকে এতিম ও দুঃস্থদের মাঝে শতাধিক বস্ত্র বিতরণ করা হয়।

নীলফামারী সংবাদদাতা : শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদৎবার্ষিকী পালিত হয়েছে নীলফামারীতে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে জেলা বিএনপি কার্যালয়ে এ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে জেলা বিএনপি। জেলা বিএনপির সভাপতি এডভোকেট আনিছুল আরেফিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান শামীম, বিএনপি নেতা মীর সেলিম ফারুক, জহুরুল আলম, গোলাম মোস্তফা রঞ্জু প্রমুখ।

সাপাহার সংবাদদাতা : নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলায় শহীদ জিয়াউর রহমানেরর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মিলাদ মাহফিল, শোক র‌্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭ ঘটিকার সময় নিয়ামতপুর দলীয় কার্যালয়ে দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন এর মধ্যে দিয়ে দিনব্যাপি বিভিন্ন অনুষ্ঠানেরর মধ্যে দিয়ে সাবেক এমপি নিয়ামতপুর থানা বিএনপির সভাপতি ডাঃ ছালেক চৌধুরীর সভাপতিত্বে শহীদ জিয়াউর রহমানেরর ৩৬তম শাহাদাৎবার্ষিকী পালিত হয়েছে। উক্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন নিয়ামতপর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ছাদরুল আমিন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, যুবদলের সভাপতি মোনজুরুল আলম, ছাত্রদলের সম্পাদক মোবাচ্ছের আলী প্রমুখ। এ সময় উপজেলার বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের সকল নেতাকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।

নেত্রকোনা সংবাদদাতা : বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে নেত্রকোনা জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার বাদ আছর ছোট বাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। 

জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ উদ্দিন খানের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক ড্যাব নেতা ডাঃ আনোয়ারুল হকের পরিচালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সিঃ সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান, সহ-সভাপতি আব্দুল ওয়াহাব ভূঁইয়া, যুগ্ম সম্পাদক সালাহ্ উদ্দিন খান মিল্কী, বজলুর রহমান পাঠান, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম মনিরুজ্জামান দুদু, সহ সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হক, কোষাধ্যক্ষ এস এম মুসা, পৌর বিএনপির সম্পাদক অমিনুল হক আমিন, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক তানভীর জাহান চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক সেলিম আহমেদ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মুখলেছুর রহমান খসরু, সহ যুব বিষয়ক সম্পাদক কামরুল হক, সহ তথ্য বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান রুবেল, জেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক মোস্তফা মাসুদ, শাহাবুদ্দিন রিপন, মনি চেয়ারম্যান, আব্দুল্লাহ আল মামুন খান রনি, রফিকুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক রাসেল মাহমুদ, মোয়াজ্জেম হোসেন, শরীফুল ইসলাম সবুজ, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ফরিদ হোসেন বাবু, সাধারণ সম্পাদক অনিক মাহবুব চৌধুরী, সিনিয়র সহ-সভাপতি সারোয়ার আলম এলিন, সহ সভাপতি এস এম দেলোয়ার হোসেন, ফারদিন চৌধুরী রিমি, শামছুল হুদা শামীম, যুগ্ম সম্পাদক লতিফুল হক চৌধুরী সুজন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন খানসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। পরে জিয়াউর রহমানের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) সংবাদদাতা : সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার তিতাস উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মোঃ আক্তারুজ্জামান সরকার বলেছেন, জীবিত জিয়ার চেয়ে শহীদ জিয়া অনেক বেশি শক্তিশালী। বিএনপির ১৯ দফা বাস্তবায়নের মাধ্যমে সুখী সমৃদ্ধশালী দেশ গড়ার প্রত্যয়ে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে সংগঠনকে শক্তিশালী করার জন্য তিনি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। তিতাস উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ওসমান গণি ভুইয়ার সঞ্চালনায় ও সহ-সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান (ভিপি) আক্তারুজ্জামানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দলের উপজেলা সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ সালাউদ্দিন সরকার, সহ-সভাপতি হাজী আলী হোসেন মোল্লা, মোঃ জুনাব আলী, আক্তারুল হক মাষ্টার, উপজেলা যুব দলের সভাপতি তোফায়েল হোসেন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি মনির হোসেন ভুইয়া প্রমুখ।

সিদ্ধিরগঞ্জ (নাঃগঞ্জ)সংবাদদাতা : বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম এর ৩৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি। দিবসটি উপলক্ষ্যে গতকাল মঙ্গলবার সিদ্ধিরগঞ্জের হিরাঝিল এলাকায় হাজী রজ্জব আলী সুপার মার্কেটস্থ জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে জেলা বিএনপি’র সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী মনিরুজ্জামান মনির সভাপতিত্ব করেন। এসময়ে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং দেশ ও জাতীর মঙ্গল কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। মিলাদ মাহফিল শেষে ইফতার সামগ্রী হিসেবে ২ শতাধিক দরিদ্র মানুষের মধ্যে খেজুর, চিনি, ছোলা, মুড়ি ও তৈল বিতরণ করা হয়। মিলাদ মাহফিল ও ইফতার সামগ্রী বিতরণের সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ, সহ-সভাপতি এডভোকেট আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, আব্দুল হাই রাজু, ব্যারিস্টার পারভেজ আহম্মেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদ হাসান রোজেল প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ