ঢাকা, বুধবার 31 May 2017, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২8, ৪ রমযান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি ছাত্রশিবিরের আহ্বান 

চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার উপকূলে ঘূর্ণিঝড় ‘মোরায়’ ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

গতকাল মঙ্গলবার দেয়া যৌথ বিবৃতিতে ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার উপকূলে ঘূর্ণিঝড় ‘মোরা’র আঘাতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ পর্যন্ত নারী ও শিশুসহ মোট পাচঁ জন নিহত ও শত শত বাড়িঘর বিধ্বস্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। অসংখ্য গাছাপালা উড়ে গেছে। জোয়ারে পানিতে কক্সবাজারের বিভিন্ন নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের তান্ডব থেকে বাঁচতে যারা আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছিল তাদের অবস্থাও করুন। আশ্রয়কেন্দ্রগুলোতে বিশুদ্ধ খাবার পানি ও খাবারের তীব্র সংকট পরিলক্ষিত হয়েছে। এ অবস্থায় দুর্গতদের সহায়তার জন্য সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন এবং ব্যক্তিগত উদ্যোগ জরুরি হয়ে পড়েছে। 

নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়ে নেতৃদ্বয় বলেন, একটি দায়িত্বশীল ছাত্র সংগঠন হিসেবে ছাত্রশিবির দেশের প্রতিটি দুর্যোগে নিজেদের সামর্থের আলোকে জনগণের পাশে দাঁড়ায়। কারো অপেক্ষায় বসে থাকা ছাত্রশিবিরের কাজ নয়। সুতরাং অবিলম্বে প্রতিটি নেতাকর্মীকে যার যার সামর্থ্য অনুযায়ী ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে হবে। তাদের সহায়তার জন্য ছাত্রজনতাকে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। কেন্দ্রের উদ্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য ইতোমধ্যে সাত সদস্য বিশিষ্ট “সেন্ট্রাল মনিটরিং সেল” গঠনসহ বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি যার যার অবস্থান থেকে সবাই সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিলে অল্প সময়ের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্তদের কষ্ট লাঘব করা সম্ভব। নেতৃদ্বয় সরকার প্রতি আহবান জানিয়ে বলেন, অবিলম্বে জরুরি ভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য পর্যাপ্ত ত্রাণের ব্যবস্থা করতে হবে। যাদের ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে তাদের জন্য নিরাপদ আশ্রয় ও দ্রুত ঘরবাড়ি মেরামতের ব্যবস্থা নিতে হবে। 

 নেৃতদ্বয় দ্রুত ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে সরকার, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন, সমাজের বিত্তবান ও নেতাকর্মীসহ সবার প্রতি আহবান জানান। একইসাথে এই দুর্যোগ থেকে জনগণের জান-মালের হেফাজতের জন্য মহান আল্লাহর কাছে দোআ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ