ঢাকা, সোমবার 05 June 2017, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২8, ৯ রমযান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

স্মিথের সংবাদ সম্মেলন জুড়ে লন্ডন হামলা প্রসঙ্গ

আজ সোমবার বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ। ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলন ছিল সকাল ১১টায়। কিন্তু ওভালে আসার পর আইসিসি মিডিয়া কর্মকর্তা জানালেন, এক ঘণ্টা পিছিয়ে ১২টায় হবে অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের সংবাদ সম্মেলন। আগে যেটা করার কথা ছিল সহ-অধিনাযক ডেভিড ওয়ার্নারের। এক ঘণ্টা পিছিয়ে যাবার পরও অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়কের সংবাদ সম্মেলন অনেকে সাংবাদিকই মিস করেছেন। রাতে লন্ডন ব্রিজের কাছে ব্যস্ত এলাকায় সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে ওই এলাকার সহ বেশ কিছু ট্রেন লাইন বন্ধ করে দেওয়া হয়। ফলে ওভালে আসতে অনেক ঝক্কি ঝামেলা পোহাতে হয় সাংবাদিকদের। অনেক ঘুরে, অনেকগুলো লাইন পরিবর্তন করে ওভালে আসতে হয়েছে তাদের। দুপুর ১২টায় সংবাদ সম্মেলনে আসলেন অধিনায়ক। কনফারেন্স রমের হল রম অন্য দিনের মতো নয়। থমথমে। স্টিভেন স্মিথের চেহারাও বলে দিচ্ছিলো, তিনি চিন্তিত। গত শনিবার রাতের সন্ত্রাসী হামলা তিনি ভুলতে পারছেন না। তিনি মর্মাহত। স্মিথের সংবাদ সম্মেলন জুড়ে গোটা আটেক প্রশ্ন ছিল এবং তার চারটিই হামলা ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে। আজকের ম্যাচের চেয়ে নিরাপত্তা ইস্যুই বড় হয়ে গেল। নিরাপত্তা নিয়ে অস্ট্রেলিয়া বরাবরই সেনসিটিভ। গত বছর তারা বাংলাদেশ সফর বাতিল করে দেয় এ প্রশ্নে। তবে লন্ডন হামলায় তিনি চিন্তিত হলেও খুব একটা ভীত নন। এখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থার প্রতি তিনি আস্থাশীল। স্মিথ বলেন, ‘গত রাতে যা ঘটেছে তা খুবই দুঃখজনক। বেশ কিছু নিরপরাধ মানুষ নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছে অনেকে। এটা খুবই জঘন্য কাজ। সন্ত্রাসীদের এই জঘন্য কাজে আমি চিন্তিত ও হতাশ। ঘটনার পরপরই আমরা এ ব্যাপারে খোঁজ খবর নিয়েছি। অস্ট্রেলিয়া থেকে আমাদের পরিবারও আমাদের জন্য যোগাযোগ করেছে। আমাদের খোঁজ খবর নিয়েছে। আমাদের ক্রিকেট বোর্ড এ ব্যাপারে সজাগ রয়েছে। নিরাপত্তার ব্যাপারটা নিশ্চয়ই আইসিসি এবং আয়োজকরা দেখবেন। এ ঘটনা অবশ্যই উদ্বেগের কারণ। তবে আপাতত আমরা খেলায় মন দিতে চাই।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ