ঢাকা, মঙ্গলবার 06 June 2017, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২8, ১০ রমযান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ক্ষমা না চাইলে সুলতানা কামালকে চট্টগ্রামের মাটিতে নামতে দেয়া হবে না-মাওলানা মঈনুদ্দিন রুহী

দুষ্টচর, অপদার্থ, নাস্তিক, সুলতানা কামালের আসল চেহারা আবারো জাতির সামনে ফুটে উঠেছে পবিত্র মাহে রমযানে সারা দেশের মানুষ যখন ইসলামী ভাব চরিত্র আর মসজিদ মুখি হয়ে আখেরাতের ভয়ে আল্লাহর রহমত কামনায় মসজিদকেই বেছে নিয়েছে। যখন মসজিদ চত্বরে এদেশের মুসলমানরা ইসলামী চেতনা লালন পালনের মাধ্যমে সরগরম করে, আল্লাহর করুনা প্রাপ্তির জন্য মুনাজাত আর দোয়াই মগ্ন, ঠিক তখনই এদেশের অন্যতম নাস্তিক ও হিন্দ্যুত্ববাদের দোসর দুঃচরিত্র নারী সুলতানা কামাল পবিত্র মসজিদকে দেশের মাটি থেকে সরানোর দাবি উঠিয়েছে। সে বলেছে বাংলাদেশের পবিত্র মাটি থেকে নাকি মূর্তি সরাতে হলে আগে মসজিদগুলোকেও সরাতে হবে। সুলতানা কামালের এদৃষ্টতার খুঁটির জোর কোথায় তা বের করতে হবে। ঢাকা শহর মসজিদের শহর হিসাবে খ্যাত, মূর্তির শহর হল কলিকাতা, সুলতানা কামালের যদি মসজিদের শহর ভাল না লাগে তাহলে তিনি মূর্তির শহরে চলে গেলে আমাদের আপত্তি নেই, তার উত্তরসুরী তসলিমাতো ঐখানেই বসবাস করেন। মসজিদ নিয়ে কটুক্তির জন্য সুলতানা কামাল কে অবশ্যই জাতির কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। আর না হলে তরুন প্রজন্ম ও মুক্তিযুদ্ধাদের সন্তানরা তাকে ক্ষমা করবে না। গত রোববার মুহাম্মদপুর, মুরাদপুর, শুলকবহর ও পাঁচলাইশ এলাকার  মুসল্লী ও হেফাজত নেতা-কর্মীদের  ইফতার মাহফিল পূব অনুষ্ঠানে হেফাজতের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও চট্টগ্রাম মহানগর সেক্রেটারী হেফাজত আন্দোলনের অন্যতম রূপকার মাও: মঈনুদ্দীন রুহী উপরোল্লিখিত কথাগুলো বলেন। জনাব রুহী আরো বলেন সুলতানা কামালকে ক্ষমা চাইতে হবে জাতির কাছে। যদি তা না হয় বিগত সময়ে এমরান এইচের মত তাকেও চট্টগ্রামের মাটিতে নামতে দেয়া হবে না, সুলতানা কে চট্টগ্রামবাসী অবাঞ্ছিত নারি মনে করেন। জনাব রুহী বাংলাদেশে ইসলাম ও মুসলমানদের ইমান আকিদা ও তাহজিব, তমাদ্দুন রক্ষা করতে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশকে আরো মজবুত ও সুসংগঠিত করার জন্য দলমত নির্বিশেষে সকল মুসলমানকে ঐক্যের আহ্বান জানান। তিনি বলেন এদেশে ইসলাম নিয়ে বেছে থাকতে চাইলে কালিমা পড়–য়া সকল নাগরিক দলমত নির্বিশেষে এক প্লাটফরমে আসতে হবে। তিনি দেশের প্রতিটি গ্রামে গ্রামে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে হেফাজতের কমিটি গঠন করার জন্য সকল ইমানদারদের প্রতি আহ্বান জানান। মহানগর সহ সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে নগর প্রচার সম্পাদক মাওলানা আ.ন.ম আহমদ উল্লাহ’র পরিচালানায় অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে আরো বক্তব্য রাখেন, সহ সভাপতি মাওলানা হাজি মোজাম্মেল হক, মাওলানা কারী ইদ্রীস, মাওলানা মুফতি হাসান মুরাদাবাদী, মাওলানা আমিন শরীফ, মাওলানা মাহমুদ রশিদ, মাওলানা হাফেজ ফয়সাল তাজ, মাওলানা আ ন ম আহমদ উল্লাহ, মাওলানা জয়নাল আবেদীন কুতুবী, মাওলানা সুহাইল সালেহ, মাওলানা মনসূরুল হক, মাওলানা শামসুল হক, মাওলানা এনামুল হক, মাওলানা আবু তাহের উসমানী, মাওলানা অধ্যক্ষ মুহাম্মদ ইউনুচ, মাওলানা জুনাইদ জাওহার, মাওলানা মুহাম্মদ হানিফ, মাওলানা সরওয়ার আলম, মাওলানা ইয়াছির মুহাম্মদ আরিফ, মাওলানা রফিকুল ইসলাম বোওয়ালী, মাওলানা ইকবাল খলীল, মাওলানা ওসমান কাসেমী, মাওলানা নাজমুস সাকিব, মাওলানা সাইফুল ইসলাম, মাওলানা কফিল উদ্দীন প্রমুখ। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ