ঢাকা, বুধবার 21 November 2018, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কাতারে থাকা বাংলাদেশিদের আতঙ্কিত না হতে আহ্বান

অনলাইন ডেস্ক: কাতারের সঙ্গে প্রতিবেশী কয়েকটি দেশের কূটনৈতিক বিরোধের প্রেক্ষাপটে দেশটিতে থাকা বাংলাদেশিদের আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

যে কোনো পরিস্থিতে যোগাযোগ করতে প্রবাসীদের পরামর্শ দিয়েছে দোহার বাংলাদেশ দূতাবাস।

মঙ্গলবার দূতাবাসের পক্ষ থেকে প্রবাসীদের দেওয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, তারা ‘নিবিড়ভাবে’ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে এবং কাতারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে।    

আরব অঞ্চলে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির অভিযোগ তুলে সোমবার কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা দেয় সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন, ইয়েমেন ও মিশর। দেশগুলোর অভিযোগ, ইসলামিক স্টেট (আইএস), আল কায়েদা, মুসলিম ব্রাদারহুডসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী সংগঠনকে ‘মদদ দিচ্ছে’ কাতার।

ইয়েমেন বাদে বাকি দেশগুলো কাতারের সঙ্গে আকাশ, নৌ ও সড়ক পথে যোগাযোগ স্থগিতের ঘোষণাও দিয়েছে।

আরব দেশগুলোর ওই ঘোষণার পর সেখানে বসবাস করা বাংলাদেশিদের মধ্যে এক ধরনের আতঙ্ক তৈরির প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ দূতাবাস এই বিবৃতি দিল। 

কাতারে চার লাখের মতো বাংলাদেশি রয়েছে। ২০২২ সালে ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রত্যাশী দেশটিতে বড় ধরনের কর্মযজ্ঞ ঘিরে বাংলাদেশের শ্রম বাজারও বড় হচ্ছে।

প্রবাসীদের মাঝে প্রচার করা বিজ্ঞপ্তিটিতে এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশিদের নিজে নিজে সিদ্ধান্ত না নিয়ে দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগের পরামর্শ করতে বলা হয়েছে।

“পরিবর্তিত পরিস্থিতি যথাযথভাবে বিশ্লেষণ ও পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে আমরা দিক-নির্দেশনা দিয়ে সাহায্য করতে পারব।”

পরিস্থিতি পুরোপুরি কাতার সরকারের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে জানিয়ে বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কোন যুক্তি আছে’ বলে দূতাবাস মনে করে না।  

এদিকে কাতারের সঙ্গে সৌদি আরবসহ সাতটি দেশ সম্পর্ক ছিন্ন করায় যে সংকট দেখা দিয়েছে তা নিরসনে মধ্যস্থতার উদ্যোগ নিয়েছে কুয়েত।

কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আল আহমাদ আল সাবাহ সংকট নিয়ে আলোচনার জন্য মঙ্গলবার সৌদি আরবে বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের সঙ্গে দেখা করতে গেছেন।

কাতার সংকট সমাধানে কূটনৈতিক আলোচনার উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়েছে এবং কুয়েত সমস্যা সমাধান করতে পারবে বলে আশা প্রকাশ করেছে।-বিডিনিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ