ঢাকা,বুধবার 14 November 2018, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সৌদি আরবে পুলিশের গুলিতে ২ বাংলাদেশি নিহত

অনলাইন ডেস্ক: সৌদি আরবের দাম্মামে পুলিশের গুলিতে শাহ্ পরান ও শামীম আহমেদ নামে দুই বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় মাহবুব আলম নামে আরেক বাংলাদেশি আহত হয়েছেন।

এরা সবাই কিশোরগঞ্জের ভৈরবের চণ্ডিগড় এলাকার বাসিন্দা। আহত মাহবুবকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শাহ্ পরানের ভাই বোরহান উদ্দিন এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, সৌদি আরবের দাম্মামের কাতিফে পুলিশের সাথে এলাকবাসীর সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় গোলাগুলিতে পড়ে তারা হতাহত হন।

বাংলাদেশ দূতাবাস ও দাম্মাম এলাকার ব্যবসায়ী আব্দুল আজিজ জানান, গত বুধবার (৬ জুন) ভোরে কফিলের খোঁজে তারা দাম্মাম যাচ্ছিলেন। পথে কাতিফ এলাকায় সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের বিরোধিতা করে পুলিশ ও এলাকাবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে তারা গুলিবিদ্ধ হন।

বর্তমানে বাংলাদেশ দূতাবাস ওই এলাকায় বসবাসরত বাংলাদেশিদের চলাচলের ক্ষেত্রে সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

নিহতের স্বজনরা জানায়, শামীম চার মাস পূর্বে ভাগ্য ফেরাতে এবং মেয়েকে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করার আশা নিয়ে সৌদি আরবে যায়। আর শাহপরাণ গত এক যুগেরও বেশি সময় ধরে সৌদি আরবে প্রবাসী জীবনযাপন করছেন। ঘটনার দিন গেল ৬ জুন শামীম মামাতো ভাই শাহপরাণকে সাথে নিয়ে সৌদির ধাম্মাম শহর থেকে আকামা করার জন্য প্রাইভেটকার যোগে আল কাতিফে যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়। শনিবার রাতে সৌদি থেকে কটিয়াদী এলাকার জনৈক এক ডাক্তার মুঠোফোনে পুলিশের গুলিতে শামীম ও শাহপরাণ নিহতের বিষয়টি তাদের পরিবারের লোকজনকে নিশ্চিত করেন। সরকারের কাছে নিহতের পরিবারের দাবি তাদের প্রিয়জনের লাশটা যেন যেকোনোভাবে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করেন। শেষ দেখাটা যেন তারা দেখতে পারেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ