ঢাকা, বুধবার 21 June 2017, ০৭ আষাঢ় ১৪২8, ২৫ রমযান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সোনারগাঁ থানার ৪ এসআই প্রত্যাহার

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থানার এসআই মারুফুর রহমান ওরফে কাটার মারুফসহ চার উপ-পরিদর্শক(এসআই)কে অবশেষে প্রত্যাহার করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে আসামী গ্রেফতার বাণিজ্য, ব্ল্যাকমেইলিং, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাদের প্রত্যাহার করে সোনারগাঁও থানা থেকে নারায়ণগঞ্জ পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়। প্রত্যাহারকৃত এসআইরা হলেন- দিদারুল আলম, নাজমুল আলম, মারুফুর রহমান ওরফে কাটার মারুফ, ও জহিরুল ইসলাম।

জানা যায়, সোনারগাঁ থানায় যোগদানের পর থেকে এ চার পুলিশ কর্মকর্তা একে অন্যের যোগসাজসে আসামী গ্রেফতার বাণিজ্য, ব্ল্যাকমেইলিং, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছেন। এদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। তাদের অত্যাচারে সাধারণ মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। সোনারগাঁও থানার এসআই মারুফুর রহমানের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি অপকর্মের অভিযোগ উঠে। এ অফিসার অন্য তিনজন অফিসারদের সঙ্গে নিয়ে এসব অপকর্ম করে আসছে।

এসআই মারুফ গত ৩ রা এপ্রিল জামপুর ইউনিয়নের কলতাপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে ব্যবসায়ী ও বিএনপি নেতা শাহ্ পরানকে গ্রেফতারের পর দুই লাখ টাকার বিনিময়ে তাকে ছেড়ে দেয়।

১৭ এপ্রিল রোববার রাতে জামপুর ইউনিয়নের বুরুমদী গ্রামের আমিনুল ইসলাম নামের এক কাপড় ব্যবসায়ীকে মাদক ব্যবসায়ী আখ্যা দিয়ে থানায় ধরে নিয়ে আসেন। পরদিন সকালে ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলামকে ছেড়ে দেওয়ার শর্তে এক লাখ টাকা দাবি করেন এসআই মারুফ। পরবর্তীতে তার বড় ভাই ব্যবসায়ী আজিজুল ইসলামের সাথে ৩০ হাজার টাকা রফাদফায় ওই ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

১৮ এপ্রিল সোমবার কলতাপাড়া গ্রামের রুবেল নামের এক মাদক ব্যবসায়ীর মায়ের মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে এক লাখ টাকায় জোড়পূর্বক আলমারি থেকে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই মাদক ব্যবসায়ীর মা রুনা বেগম পরদিন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন। এছাড়াও রাতের বেলায় আসামী গ্রেফতারের পর মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে আসামী ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। এ চার পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সখ্যতার অভিযোগ উঠে।

প্রত্যাহারকৃতদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার বাণিজ্য, ব্ল্যাকমেইলিং, চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপকর্মের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ওই চারজনকে সোনারগাঁ থানা থেকে প্রত্যাহার করে নারায়ণগঞ্জের মাসদাইরে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করে নেওয়া হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের রিজার্ভ অফিসার (আর ও) মনির হোসেন হোসেন সত্যতা স্বীকার করে জানান, চার এসআইকে দুপুরে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।

সোনারগাঁও থানার মঞ্জুর কাদের পিপিএম চারজন অফিসারকে প্রত্যাহারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ