ঢাকা, বুধবার 21 June 2017, ০৭ আষাঢ় ১৪২8, ২৫ রমযান ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মাধবদীতে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে অস্ত্র সহ ৩ ডাকাত গ্রেফতার

মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা: ডাকাতি করার পূর্ব প্রস্তুতি নেয়ার সময় দেশীয় অস্ত্রসহ ৩ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় মাধবদী থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১৪ জুন বুধবার গভীর রাতে মাধবদী থানার আমদিয়া ইউনিয়নের বেলাটী গ্রামে। এ ঘটনায় এলাকায় ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করছে। পুলিশ সুত্রে জানা যায়, ডাকাতি হওয়ার আগেই মাধবদী থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত বুধবার গভীর রাতে নরসিংদী সদর উপজেলার মাধবদী থানার আমদিয়া ইউনিয়নের বেলাটী গ্রামে অভিযান চালিয়ে ডাকাতি করার জন্য পুর্ব প্রস্তুতি নেয়ার সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দেশীয় অস্ত্র ৮টি বড় রামদা ও ১ টি চাইনিজ কুড়াল সহ ৩ ডাকাতকে আটক করার সময় তাদের সঙ্গীয় আরো ৪/৫ জন ডাকাত এ সময় পালিয়ে যায়। আটককৃত ডাকাতরা হলো পলাশ থানার ডাংগা (হাসন হাটা) গ্রামের বাদল মিয়ার ছেলে হৃদয়(২০), চুয়াডাঙ্গা জেলার হযরত আলীর ছেলে রমজান আলী(২৫), আড়াইহাজার থানার পুরিন্দা গ্রামের হরমদ আলীর ছেলে সুমন(২২)। আসামীদের কাছ থেকে জানাযায় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের সাথে থাকা সন্ত্রাসী ও অস্ত্র মামলার আসামী শাহ আলম, কায়ের বাড়ির গ্রামের মানিক ডাকাতের ছেলে রবিন হোসেন রানা, একই গ্রামের ইউছুব আলীর পুত্র রমজান, ধুন্দুল পাড়া গ্রামের কালা মিয়ার পুত্র হাকিম মিয়া পালিয়ে যায়। এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায় উল্লেখিত ৪ ব্যক্তি দীর্ঘদিন যাবৎ বেলাটি গ্রামে মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছে। তারা নরসিংদীর আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে চিহ্নিত চোর ডাকাত এলাকায় নিয়ে এসে গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে ও রাস্তা ঘাটে চুরি ডাকাতি করাতো। এলাকাবাসীর দাবী তাদের গ্রেপ্তার করলেই সকল অপকর্মের ঘটনার রহস্য বেরিয়ে আসবে। এব্যাপারে মাধবদী থানায় ১৫ জন কে আসামী করে অস্ত্র ও ডাকাতি করার প্রস্তুতির দু’টি মামলা দায়ের হয়েছে বলে থানা পুলিশ জানায়। যার মামলা নং ১২ ও ১৩, তাং-১৫/০৬/২০১৭ইং। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী স্বস্তির নিঃশ্বাসের পাশাপাশি ডাকাত আতঙ্কে ভুগছেন। তারা এলাকায় পুলিশের কড়া নিরাপত্তা দাবী করছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ