ঢাকা, সোমবার 3 July 2017, ১৯ আষাঢ় ১৪২8, ৮ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

হাথুরকে নিয়ে চিন্তিত না বিসিবি

স্পোর্টস রিপোর্টার: হাথুরসিংহে বাংলাদেশের কোচ হিসেবেই দায়িত্ব পালন করবেন বলে আশা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। শ্রীলঙ্কা তাকে কোচ হিসেবে চাইলেও বিষয়টি ‘আমলে’ নিচ্ছেন না বিসিবি’র কর্মকর্তারা। শ্রীলঙ্কার কোচ পদত্যাগ করার পর হাথুরসিংহের সঙ্গে যোগাযোগ করছে দেশটির বোর্ড। শ্রীলঙ্কান গণমাধ্যম আইল্যান্ড সম্প্রতি এমন খবর প্রকাশ করেছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিসিবি মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানান, এটি তাদের দেশের একটি পত্রিকার খবর। আমরা বিষয়টি আমলে নিচ্ছি না। কোচও আমাদের কিছু জানাননি। দ্বিতীয় মেয়াদে ১৫ মাস দায়িত্ব পালন করার পর সম্প্রতি লঙ্কানদের কোচের পদ ছাড়েন গ্রাহাম ফোর্ড। দেশটির বোর্ড সভাপতি থিলাঙ্গা সুমাথিপালার দাবি, দু’পক্ষের সমঝোতায় শেষ হয়েছে ফোর্ডের চুক্তি। কিন্তু ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, কোচের কাজে বোর্ডের হস্তক্ষেপের জেরে ক্ষোভে পদ ছেড়েছেন ফোর্ড। হাথুরসিংহেও এক সময় শ্রীলঙ্কার সহকারী কোচ ছিলেন। তৎকালীন বোর্ড কর্মকর্তাদের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় তিনি চাকরি ছাড়েন । এরপর অস্ট্রেলিয়ায় সিডনি থান্ডার্সের দায়িত্ব নেন।
হাথুরসিংহের সঙ্গে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চুক্তি ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তার অধীনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বিশ্বের নতুন পরাশক্তি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। ওয়ানডে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল খেলার পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনাল খেলেছেন মাশরাফিরা। হাথুর প্রায়ই বলেন, ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে বাংলাদেশকে দিয়ে তিনি ক্রিকেট বিশ্বকে  চমকে দিতে চান। যাওয়ার আগে বাংলাদেশকে ১৯৯৬ সালের ‘শ্রীলঙ্কা’ বানিয়ে যেতে চান। গত মার্চে ক্রিকইনফোর সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেছিলেন, যদি শ্রীলঙ্কা আমাকে স্মরণ করে, তাহলে অবশ্যই আমি ফিরবো। শ্রীলঙ্কা যদি আমাকে ডাকে, তাহলে আনন্দের সঙ্গে দেশের জন্য কিছু করতে চাইবো। হাথুরসিংহের ওই বক্তব্য টেনে আইল্যান্ড দাবি করে, তিনি ফিরলেও ফিরতে পারেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ