ঢাকা, শুক্রবার 18 October 2019, ৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

অতি তোশামোদে বিব্রত বাদশাহ

অনলাইন ডেস্ক: সৌদি আরবের বাদশাহ সালমানকে প্রশংসা করার মাত্রা এতটাই বেশি ছিল যে এই অপরাধে স্বয়ং বাদশাহ তোশামোদকারী লেখককে বরখাস্ত করার নির্দেশ দিতে বাধ্য হন।

রামাদান আল-আনজি নামক ওই তোশামোদি কলাম প্রকাশিত হয়েছিল আল-জাজিরাহ পত্রিকায়।

কলামে যেসব শব্দ বা বৈশিষ্ট্য ব্যবহার করে বাদশাহকে প্রশংসা করেছেন লেখক, সাধারণত সেসব বৈশিষ্ট্য বা শব্দাবলী সৃষ্টিকর্তার প্রশংসায় ব্যবহার করা হয়।

যদিও সৌদি আরবে বাদশাহকে আবেগপ্রবনভাবে প্রশংসা করা যায় আর এটা অস্বাভাবিকও কিছু নয়, কিন্তু ঈশ্বরতুল্য বা দেবতাতুল্য প্রশংসা দেশটিতে একেবারেই সমর্থিত নয়।

বাদশাহ সালমান তাঁর এমন প্রশংসায় 'বিস্মিত' হয়ে নির্দেশ দেন মি: আনজিকে যেন বরখাস্ত করা হয়- সৌদি সংবাদমাধ্যমে এমনটাই বলা হচ্ছে।

শুক্রবার ওই কলামটি ছাপানো হয়। ইতোমধ্যেই পত্রিকাটি ওই লেখার জন্য লিখিতভাবে ক্ষমা চেয়েছে।

মি: আনজি তাঁর লেখায় বাদশাহ সালমানকে 'হালিম' বা ধৈর্যশীল এবং 'শাদেদ আল-ইকাব' বলে বর্ণনা করেন। আর এ দুটি শব্দই সৃষ্টিকর্তার প্রশংসায় ব্যবহৃত হয়।

আল জাজিরাহ পত্রিকা ক্ষমাসূচক বিবৃতিতে লিখেছে "লেখক যেই প্রশংসাসূচক শব্দ তাঁর লেখায় ব্যবহার করেছে তা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। সৃষ্টিকর্তা তাঁকে যা প্রদান করেছেন তার পরিবর্তে তার এমনটা করা একদমই ঠিক নয়। সৃষ্টিকর্তা তাকে রক্ষা করুন"।

সৌদি সংবাদমাধ্যমে বলা হচ্ছে, ওই পত্রিকার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ারও নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ