ঢাকা, বুধবার 5 July 2017, ২১ আষাঢ় ১৪২8, ১০ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিরোধী দলকে ভয় পাইয়ে দিতেই ফরহাদ মজহার অপহরণের নাটক করেছে সরকার -বিএনপি

 

স্টাফ রিপোর্টার: বিরোধী দলকে ভয় পাইয়ে দিতে সরকার ফরহাদ মজহারের অপহরণের নাটক মঞ্চস্থ করেছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নয়া পল্টনে মহানগর বিএনপি কার্যালয়ের মওলানা ভাসানী মিলনায়তনে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে আয়োজিত এক কর্মী সভায় দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই অভিযোগ তোলেন।

তিনি বলেন, এটা কিছুই না, যারা প্রতিবাদী কন্ঠস্বর, শানিত লেখনি তাদেরকে ভয় পাইয়ে দেয়ার ম্যাসেজ, বিরোধী দলকে ভয় পাইয়ে দেয়ার ম্যাসেজ- খবরদার তোমরা যদি আর কেউ কথা বলো তোমাদের পরিণতি ফরহাদ মজহারের মতো হবে। অতএব আর কেউ লেখো না, বলো না, তাদের কন্ঠস্বর থেকে আর কোনো ধ্বনি যেন উচ্চারিত না হয়। এই সম্পূর্ণ নাটকের পরিচালক প্রযোজক সরকার, শেখ হাসিনা। আমি বিএনপির পক্ষ থেকে এ তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

রিজভী বলেন, আগামী নির্বাচনের আগেএরকম নাটক করে কোনো লাভ হবে না। বিএনপি নির্বাচনে যাবে, নির্বাচন করবেই। যতই আপনারা যাই করেন না করুন। কিন্তু শেখ হাসিনার অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না, হতে পারে না। ক্ষমতাসীনদের বলব, সেই স্বপ্ন ভুলে যান, সেই সুখ স্বপ্নের মধ্যে ভাসলে হবে না। সহায়ক সরকার দল নিরপেক্ষ সরকার হবে।

নিখোঁজ হওয়ার ১৮ ঘন্টা পর রাতে যশোরের নওয়াপাড়া থেকে উদ্ধার হওয়ায় সৃষ্টিকর্তার কাছে শুকরিয়া আদায় করে তিনি বলেন, আমরা আল্লাহর কাছে হাজার শোকর জানায় যে, ফরহাদ মজহারকে তারা হজম করতে পারেনি।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, কয়েক বছর আগে কবি ফরহাদ মজহার রচিত একটি কবিতা আছে। আমি মৃত্যুকে ভয় করি না কিন্ত গুম হয়ে যেতে ভয় করি। অদ্ভুত কী কাকতালীয় ঘটনায় কবি যে কবিতা লিখেছেন তার জীবনেও গুম হয়ে যাওয়া ঘটনা ঘটেছে। সারাদিন ( সোমবার) বিষন্ন, উদ্বেগ-উৎকন্ঠায় ছিল সারা জাতি। যারা মুক্ত চিন্তা করেন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে যাদের প্রতিবাদ দ্রোহ-হৃদয়ের মধ্যে কাজ করে তাদের প্রত্যেকেই বিপন্নবোধ করেছেন। কবি ফরহাদ মজহারকে কী একজন ছিঁচকে সন্ত্রাসী অপহরণ করতে পারে। যদি রাষ্ট্রের আনুকল্য না থাকে, রাষ্ট্রের আনুকল্যে তাকে অপহরণ করা হয়েছে।

এই অপহরণের সম্ভাব্য কারণের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ঘটনার ১৬ ঘন্টার আগে ভারতের মুসলিম নিধনে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে যে প্রেস ব্রিফিং করা হয়েছিলো, সেখানে আরেকজন সাহসী মানুষ আমার দেশের সম্পাদক মাহমুদুর রহমান প্রতিবাদ করে সাংবাদিক সম্মেলন করেছিলেন। সেখানে ফরহাদ মজহার বসেছিলেন। সরকার মনে করেছে যে, মাহমুদুর রহমানকে বুদ্ধি-পরামর্শ ফরহাদ মজহার দিচ্ছেন। অথবা মাহমুদুর রহমান চার বছর জেল খেটে এসেছেন, এখন গুম করলে কেমন হয় ফরহাদ মজহারকে আগে করে দেখি কী হতে পারে। কবি ফরহাদ মজহারকে গুম করা হয়েছে দেখি প্রতিক্রিয়া কী হতে পারে- এটাই হচ্ছে তাদের(সরকার) উদ্দেশ্য।

নিখোঁজ থেকে ফরহাদ মজহারকে উদ্ধারের পর খুলনার ডিআইজি দিদার আহম্মেদের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে রিজভী বলেন, পুলিশ বলেছে সাজানো নাটক। হ্যাঁ সাজানো নাটক তো আপনারাই করেন। একের পর এক ঘটনা তো দেখেছি আমরা। ইলিয়াস আলীকে কিভাবে সাজানো নাটকের মধ্য দিয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হলো। আশ-পাশের লোক দেখলো মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যাওয়া হলো, তার গাড়ি পড়ে আছে, ড্রাইভারকে তুলে নিয়ে গেলো। তারা কারা? তারা কী ছিঁচকে সন্ত্রাসী, তারা কী পাড়া-মহল্লার মাস্তান, তারা কী শীর্ষ সন্ত্রাসী?

এভাবে মাইক্রোবাসে করে একেবারে সশস্ত্র অবস্থায় একের পর এক তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, সাইফুল ইসলাম হীরু, হুমায়ুন কবীর পারভেজ এরকম সারাদেশ থেকে বাড়িতে বাড়িতে, গৃহে গৃহে মায়ের কান্না ঝরিয়ে, স্ত্রী-সন্তানদের কান্না ঝরিয়ে একের পর এক হাসিনার নির্দেশে গুম হচ্ছে, অপহরণ হচ্ছে। তারপরও আপনাদের কথা বিশ্বাস করতে হবে যে সাজানো নাটক। সাজানো নাটক আপনাদের। নারায়ণগঞ্জের ৭ খুনে কিভাবে স্থানীয় ওয়ার্ড কমিশনারকে হত্যা করা হয়েছে সেই কথাও বলেন তিনি।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, কবি ফরহাদ মজহার প্রাবন্ধিক, রাজনৈতিক ভাষ্যকার, গীতিকার। উনি কেনো সাজানো নাটক করবেন? এই দুঃসময়ে, এই দুর্বিপাক-দুর্যোগের মধ্যে। এটা পাগলেও বুঝে যে রাষ্ট্র এই অপহরণের সাথে জড়িত?

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের পর বিরোধী আন্দোলনের সময়ে ‘গুম’ হওয়া দলের ওই সময়কার যুগ্ম মহাসচিব বর্তমানে স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদকে ‘নাটক’ করে ভারতের শিলংয়ে উদ্ধার পাওয়ার ঘটনাও তুলে ধরেন তিনি। সালাহউদ্দিন আহমেদের মতো ওইরকম একটি ঘটনা হতে চলছিলো। যখন মানিকগঞ্জ, মাগুরা, যশোর, খুলনা তারপর সীমান্তের দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। আবার সালাহউদ্দিনের ঘটনা ঘটানোর পরিকল্পনা করা হচ্ছিল বা এইধরণের কিছু একটা।

মহানগর দক্ষিণের সভাপতি এসএম জিলানীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলামের পরিচালনায় এই কর্মী সভায় মহানগর বিএনপি দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূঁইয়া জুয়েল বক্তব্য রাখেন। এই কর্মী সভায় স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সহসভাপতি গোলাম সারোয়ার, যুগ্ম সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, সাদরেজ জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াসীন আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

যুবদলের নিন্দা: যুবদল সভাপতি সাইফুল আলম নীরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু এক বিবৃতিতে লৌহজং উপজেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আল আমিন খান এর বাড়ি সহ উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতির বাড়িতে স্থানীয় সশস্ত্র যুবলীগ ও ছাত্রলীগ কর্তৃক হামলা ভাংচুর এবং পরিবারের সদস্যদের মারধর মারধর করে আহত করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করেছেন। বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন ৭৫ পূর্বের ন্যায় এই হায়েনা আওয়ামী গোষ্ঠী বিগত কয়েকটি বছর বাংলাদেশের জণগণের উপর আবার গুম, হত্যা, লুটপাট, নারী নির্যাতন, বাংলাদেশ ব্যাংক সহ সকল বাণিজ্যিক ব্যাংক লুট, তাদের অধিকারভুক্ত হিন্দুদের সম্পত্তি বেদখল সর্বপরি দেশকে নৈরাজ্যকর শ্বশানে পরিণত করেছে । তাদের হিসাংত্বক কার্যকালাপে পুরো জাতির পিঠ দেওয়ালে ঠেকে গেছে। এদের বিরুদ্ধে সর্বত্মক প্রতিরোধই জাতিকে রক্ষা করার একমাত্র উপায়। নীরব টুকু অবিলম্বে আল আমিনের বাড়িতে হামলাকারী যুবলীগ ছাত্রলীগের স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবি জানান।

এছাড়া নেতৃদ্বয় অপর এক বিবৃতিতে গজারিয়া উপজেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান আংগুর এর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তারা মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

 স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রতিবাদ: হবিগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক ও সদর উপজেলার আহ্বায়ক এম এ মন্নান-এর বাড়িতে বিনা গ্রেফতারী পরোয়ানায় তল্লাসী ও পরিবারের সদস্যদের ভয-ভীতি প্রদর্শনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি শফিউল বারী বাবু ও সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূইয়া জুয়েল। নেতৃবৃন্দ বলেন, বিনাভোটের অবৈধ সরকার গণবিচ্ছিন্নতার ফলে জন-আতঙ্কে ভুগছে। আর তাই একের পর এক নেতা-কর্মীকে হয়রানি , গ্রেফতার করছে । বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ সরকারকে প্রতিহিংসার রাজনীতি ও নেতা-কর্মীদের পুলিশী হয়রানি বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ