ঢাকা, রোববার 21 October 2018, ৬ কার্তিক ১৪২৫, ১০ সফর ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সৌদি আরবে হাল ফ্যাশনের বোরকা নিয়ে বিতর্ক

অনলাইন ডেস্ক: সৌদি আরবের মহিলাদের সূচীকর্ম করা কাপড় পরতে এবং মেক-আপ না নিতে বলেছিলেন সেখানকার এক নামকরা ধর্মীয় নেতা। কিন্তু সৌদি মহিলারা তার আহ্বান অগ্রাহ্য করেছেন।

সৌদি ধর্মীয় নেতা মোহাম্মদ আলারাফে মহিলাদের এমব্রয়ডারি বা সূচিকর্ম করা 'আবায়া' বা বোরকা না পড়ার জন্য এই পরামর্শ দেন। সৌদি মহিলারা যে আবায়া পড়েন, তাতে মুখ, হাত এবং পা ছাড়া পুরো শরীর ঢাকা থাকে।

বিভিন্ন রঙের এবং হাল ফ্যাশনের অনেক আবায়া সৌদি আরবের মহিলাদের পরতে দেখা যায়।

কারুকাজ করা হাল ফ্যাশনের বোরকার কদর বাড়ছে

কিন্তু মোহাম্মদ আলারাখে গত রবিবার টুইটারে এক পোস্টে বলেন, " হে কন্যারা, এমন আবায়া তোমরা কিনবে না, যেটাতে অনেক সাজ-সজ্জা আছে। এবং তোমাদের প্রতি অনুরোধ, কোন মেক-আপ ব্যবহার করো না।"

কিন্তু তাঁর এই ডাক অগ্রাহ্য করে উল্টো অনেক মহিলা তাদের আবায়া পরা ছবি টুইটারে পোস্ট করে জানতে চায়, তাদের কেমন লাগছে।

একজন মহিলা টুইটারে তাঁর আবায়া পরা ছবি পোস্ট করে জানতে চান, "শেখ, আমার আবায়া তোমার কেমন লাগছে? এর পরের বার আমি আরও রঙ ঝলমলে কারুকাজ করা আবায়া কিনবো।"

তবে মোহাম্মদ আলারাফে সৌদি আরবে বেশ জনপ্রিয়। তাঁর পোস্টটি রি-টুইট করা হয় ৩১ হাজার বার।

আরেকজন টুইট করেন, "আমি আমার চমৎকার খোলামেলা আবায়ার ছবি শেয়ার করতে চাই।"

মুসলিম ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিতে এখন আবায়ার গুরুত্ব বাড়ছে। হ্যারডসের মতো নামকরা দোকানেও এখন আবায়া বিক্রি হয়।

কিন্তু সৌদি আরবে ধর্মীয় রক্ষণশীলরা একে ফ্যাশন হিসেবে দেখতে নারাজ।-বিবিসি বাংলা

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ