ঢাকা, শনিবার 15 July 2017, ৩১ আষাঢ় ১৪২8, ২০ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

প্রাণে বেঁচে গেল অর্ধশতাধিক বাস যাত্রী দেলদুয়ার-লাউহাটী সড়কে যানবাহন বন্ধ

দেলদুয়ার এলাচিপুর এলেংজানী নদীর উপর ব্রিজের এপ্রোচের মাটি ধসে প্রায় ২০ ফুট গভীর খাদের সৃষ্টি হয়েছে

দেলদুয়ার (টাঙ্গাইল) সংবাদদাতা : অল্পের জন্য ভয়ংকর দুর্ঘটনা থেকে অলৌকিক ভাবে প্রাণে বেঁচে গেলেন প্রায় অর্ধশতাধিক বাস যাত্রী। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার ভোরে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলার এলাচিপুরে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট থাকায় এ রাস্তা দিয়ে হানিফ পরিবহনের ঢাকা মেট্রো-ব (১৪-৭১৭১) একটি বাস প্রায় অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে দিনাজপুর থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। শুক্রবার ভোরে এলাচিপুর বাজার সংলগ্ন এলেংজানী নদীর উপর ব্রিজ পাড়ি দেয়ার সময় দক্ষিন পাশের এপ্রোচের মাটি ধ্বসে প্রায় ২০ ফুট গভীর খাদের সৃষ্টি হয়। বাসটি কোন রকমে ভীমের সাথে আটকে ঝুলন্ত অবস্থায় থাকে। এমতাবস্থায় স্থানীয় এলাকাবাসী যাত্রীদের উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে নিয়ে আসে। খবর পেয়ে দেলদুয়ার থানা পুলিশ, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা প্রকৌশলী ঘটনাস্থলে পৌঁছান। পরে টাঙ্গাইল থেকে একটি ক্রেন এনে বাসটি উদ্ধার করা হয়। এদিকে এপ্রোচ ধ্বসের কারণে ব্রিজের উভয় পাশে বহু যানবাহন আটকা পড়ে। বন্ধ রয়েছে দেলদুয়ার লাউহাটী সড়কের যানবাহন চলাচল। এ ব্যাপারে দেলদুয়ার উপজেলা প্রকৌশলী মীর আলী শাকিল বলেন, বন্যায় প্রবল ¯্রােতে ব্রিজের এপ্রোচের মাটি ধ্বসে যাওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে হতাহতের কোন ঘটনা ঘটেনি। বর্তমানে বাঁশের সাঁকো দিয়ে সাধারণ জনগণের চলাচলের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। শীঘ্রই বালির বস্তা ফেলে সাময়িক চলাচলের উপযোগী করা হবে। বর্ষার পর স্থায়ী মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হবে। এ ব্যাপারে দেলদুয়ার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম ফেরদৌস আহমেদ বলেন, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযান তদারকি করি। সাময়িকভাবে চলাচলের ব্যবস্থা করার জন্য স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও এলজিডি বিভাগকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ