ঢাকা, শনিবার 15 July 2017, ৩১ আষাঢ় ১৪২8, ২০ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

কলাপাড়ায় ইউপি মেম্বারের বিরুদ্ধে জেলেদের চাল আত্মসাতের অভিযোগ

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা : পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় মহিপুর ইউপি সদস্য ৫নং ওর্য়াডের নজিবপর গ্রামের সোবাহার মেম্বারের বিরুদ্ধে জেলেদের চাল স্থানীয়দের বাজারে ভিটি দেয়াসহ পাঁচ লাখ টাকা আতœসাতের অভিযোগ উঠেছে। ভূমিদস্যু হিসেবে পরিচিত এই ইউপিসদস্যের অত্যাচারে স্থানীয় লোকজন অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। বিধাবা ভাতা, বয়স্কভাতা, ভিজিডি, ভিজিএফ, রেশনকার্ড বিতরণ ও নাম অন্তর্ভুক্ত করতে জন প্রতি দুই’শ থেকে পাঁচ টাকা করে হাতিয়ে নিয়েছে। এ বিষয়ে ইউপি প্রতিকার চেয়ে স্থানীয় জেলে সহ শতাধিক ব্যক্তিরা ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেরা মৎস্য কর্মকর্তা, উপজেলা চেয়াম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এসব অভিযোগের তোয়াক্কা না করে উল্টো অভিযোগ কারীদের দেখে নেয়ার হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে ভুক্তভোগিরা জানান,

সরেজমিনে গেলে স্থানীয়রা জানান, সোবাহান মেম্বার একজন ভূমিদস্যু মামলাবাজ তার বিরুদ্ধে কলাপাড়া থানায় হামলা সহ একাধিক মামলা রয়েছে.মহিপুর বন্দর ব্যবস্যয়ী জাহাঙ্গীর মৃধা, আলমগীর মৃধা, মিলন ফিটার, আলমহাং রুহুল আমিন, ময়না বেগম, রাশিদা বেগমসহ একাধিক ব্যক্তিদের কাছ থেকে বাজারে ভিটি দেয়া ও মামলার ফয়সালা করার কথা বলে প্রায় দশ লক্ষধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। মহিপুর থানা সোবহান প্যাদা বলেন, ইউপি সদস্য সোবাহান মহিপুর বাজারে ভিটি দেয়ার কথা বলে তার কাছে থেকে আশি হাজার টাকা নেয় অদ্যবদি টাকা বা ভিটি দেয় হয়নি । টাকা চাইতে গেলে টাল বাহনা করে আসছে।

এ ব্যাপারে সোবাহান বাদি হয়ে ইউপি সদস্য সোবাহানের বিরুদ্ধে কলাপাড়া উপজেলার সিনিয়ার জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। নজীবপুর এলাকা জেলে হওয়া সত্ত্বেও এখন পর্যন্ত কোন চাল পায়না। জেলের নামের চাল আনতে ইউপি সদস্য সোবহান তার কাছে টাকা দাবি করে। তার দাবিকৃত টাকা না দেয়ায় তাকে চাল দেয় হয়নি। এ বিষয়ে প্রতিকারে চেয়ে বৃদ্ধ সানু গরামী স্থানীয় চেয়াম্যানসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ বিষয়ে ইউপি মেম্বার সোবহান জানান, তার সামাজিক কাজ কর্মে ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রতিপক্ষরা আমার বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে, কারও কাছ থেকে তিনি কোন টাকা পয়সা নেয়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ