ঢাকা, রোববার 16 July 2017, ১ শ্রাবণ ১৪২8, ২১ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

তুর্কী জনগণের সাহস ও প্রতিরোধের প্রশংসায় পাকিস্তান জামায়াতের আমীর

১৫ জুলাই, আনাদোলু নিউজ এজেন্সি : পাকিস্তান জামায়াতে ইসলামীর আমীর সিরাজ-উল-হক তুরস্কের ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানে তুর্কি জনগণের সাহস ও প্রতিরোধের প্রশংসা করেছেন।  তিনি আনাদোলু নিউজ এজেন্সিকে এক সাক্ষাতকারে বলেন, ‘আমি তুর্কি জনগণের প্রতি অভিবাদন জানাই যারা জীবন বাজি রেখে ট্যাংকের সামনে দাঁড়িয়েছিল এবং তাদের রাষ্ট্র, সরকার ও গণতন্ত্রকে সুরক্ষা করেছিল’।
পাকিস্তানের জামায়াতে ইসলামী প্রধান সিরাজ-উল-হক বলেন, প্রেসিডেন্ট রজব তৈয়ব এরদোগানের গতিশীল নেতৃত্বের কারণে তুরস্কের সব ক্ষেত্রে আজ অগ্রগতি হয়েছে এবং এখন এটি বিশ্বের শীর্ষ ২০টি বড় অর্থনীতির দেশের একটিতে পরিণত হয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘মুসলিম বিশ্বের জনগণ তাদের শাসকদের ব্যাপারে হতাশ কারণ শাসকরা তাদের জাতির সাথে ভণ্ডামী এবং দুর্নীতি করছে কিন্তু তুরস্ক হচ্ছে একমাত্র দেশ যার জনগণ দেশটির সরকার ও প্রেসিডেন্ট রজব তৈয়ব এরদোগানের প্রতি সন্তুষ্ট। তারা তাদের প্রেসিডেন্টের জন্য জীবন দিতেও প্রস্তুত।’
গত বছর ১৬ জুলাই জামায়াত-ই-ইসলামি সারা পাকিস্তানব্যাপী সমাবেশ করে তুরস্কের জনগণের সাথে সংহতি প্রকাশের লক্ষ্যে।  পাকিস্তানে ফেতুল্লাহ্ সন্ত্রাসী সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত স্কুল সম্পর্কে একটি প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের মাটির ব্যবহার করে কেউ তুরস্কের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ার অনুমতি পাবে না।’ 
তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং পশ্চিমা দেশগুলোকে তুরস্কে এ সেনা অভ্যুত্থানের প্রচেষ্টার জন্য অভিযুক্ত করেছেন। পাকিস্তানের প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতা সিরাজ-উল-হক আরো বলেন, মুসলিম বিশ্বে এরদোগানই একমাত্র নেতা যিনি মুসলিম উম্মাহর জন্য বলিষ্ঠ কন্ঠে আওয়াজ তুলেছেন।
আফগানিস্তানের বর্তমান নিরাপত্তা পরিস্থিতি সম্পর্কে জেআই প্রধান দাবি করেন যে, আফগানিস্তানের অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্রই দায়ী এবং তারা আফগান যুদ্ধে কখনো জয়লাভ করতে পারবে না। তিনি পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের নেতৃত্বকে এ অঞ্চলের শান্তি আনতে সহায়তা করার জন্য আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ