ঢাকা, বুধবার 19 July 2017, ৪ শ্রাবণ ১৪২8, ২৪ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

যুবলীগের বাধার মুখে কেসিসির সিডিউল কিনতে পারেনি ঠিকাদাররা

খুলনা অফিস : খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৫ হাজার কেজি ব্লিচিং পাউডার ও ৩০ অথবা ৫০ কেজি ওজনের প্লাস্টিক ড্রাম ক্রয়ে ৩ লাখ টাকার টেন্ডার সমঝোতা করা হয়েছে। সোমবার খুলনা সিটি কর্পোরেশনে রাজনৈতিক দলের প্রভাবশালী ঠিকাদার ও যুবলীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যস্থতায় এ সমঝোতা হয়। যার ফলে কাজটি বাগিয়ে নিয়েছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স এস এম এন্টারপ্রাইজ।

কর্পোরেশন সূত্রে জানা গেছে, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের ৫ হাজার কেজি ব্লিচিং পাউডার ও ৩০ অথবা ৫০ কেজি ওজনের প্লাস্টিক ড্রাম ক্রয়ে ৩ লাখ টাকার টেন্ডার আহ্বান করে খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি)। পিপিআর-০৯ এর আরএফকিউ পদ্ধতিতে ওয়েব সাইটে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সিটি কর্পোরেশন ভবনে এ দরপত্রের আহ্বান করা হয়। ১৬ জুলাই ছিল দরপত্র বিক্রির শেষ দিন। শেষ দিন পর্যন্ত ১৭টি দরপত্র বিক্রি হয়। সোমবার দুপুর ১টায় ওই দরপত্র জমার শেষ সময় ধার্য করা হয়। দরপত্র উন্মুক্ত করার সময় ছিল বিকেল ৩টা। তবে শেষ সময় পর্যন্ত টেন্ডার বাক্সে ১৭টির বিপরীতে দরপত্র পড়ে মাত্র ৩টি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ঠিকাদার অভিযোগ করেন, সকাল থেকে কর্পোরেশনে সরকার সমর্থক প্রভাবশালী ঠিকাদাররা ও যুবলীগ কর্মীরা ওই টেন্ডার কাজের সমঝোতার চেষ্টা করেন। সাধারণ ঠিকাদাররা দরপত্র জমা দিতে গেলেই তারা বাধা দেয়। তাদের বাধার মুখে সাধারণ ঠিকাদার দরপত্র দাখিল করতে ব্যর্থ হয়। ফলে প্রভাবশালীদের হুমকিতে ১৭ ঠিকাদারের ১৪ জনই দরপত্র জমা দিতে না পারায় সর্বনিম্ন ২ লাখ ৯৯ হাজার টাকায় কাজটি বাগিয়ে নিয়েছেন পছন্দের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স এস এম এন্টারপ্রাইজ।

কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পলাশ কান্তি বালা বলেন, এ ধরনের কোন অভিযোগ তার কাছে আসেনি। তাই বিষয়টি তার নলেজে নেই।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ