ঢাকা, বুধবার 19 July 2017, ৪ শ্রাবণ ১৪২8, ২৪ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আপত্তিকর ছবি প্রকাশের অভিযোগে থানায় জিডি

কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) সংবাদদাতা: কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে কম্পিউটারে এডিট করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত দুই ডাক্তারের ছবি ফেসবুকে প্রকাশের অভিযোগে দুই ডাক্তার পৃথক পৃথক ভাবে ঢাকা কাফরুল ও কটিয়াদী মডেল থানায় সাধারন ডায়রী দায়ের করেছেন।
জানাযায়, কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক নারী ডাক্তারের নাম ব্যবহার করে কে বা কারা ভূয়া ফেসবুক আইডি খুলে তাতে কম্পিউটার ফটোসপে এডিট করে ২৯এপ্রিল দুই ডাক্তারের কিছু মিথ্যা ও আপত্তিকর ছবি পোষ্ট করেন।
তারপর ০৮জুলাই পুনরায় নতুন করে আবার এম আর অভি নামের আরও একটি ফেসবুক আইডি থেকে ঐ ছবিগুলো পোস্ট করেন।
তার পূর্বে পুরুষ ডাক্তারের মোবাইলে ১৪ ফেব্রুয়ারী ০১৭৪৩-৬৯২১৫২ নং মোবাইল ফোন থেকে একটি ম্যাসেজ লিখে পাঠায় যে, ভাই কি করছেন, আপনার কিছু ফটো সাংবাদিকরা ফ্লাস করবে হয়তো সাবধানে থাকবেন ।
এ ব্যাপারে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পুরুষ ডাক্তারের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমি এবং আমার সহকর্মী নারী ডাক্তার অনেক রোগী দেখে থাকি কিছু অসাধু লোকের কথায় নিম্নমানের ঔষধ না লিখায় একটি মহল আমাদেরকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অসৎ উদ্দেশ্যে কম্পিউটারে ফটোসপের মাধ্যমে এডিট করে মিথ্যা ও বানোয়াট ভিত্তিহীন কিছু ছবি ভূয়া ফেসবুক আইডির মাধ্যমে পোষ্ট করেছে। যাহা সম্পূর্ণ অসত্য ও মিথ্যা। আমি ০১জুন/১৭ তারিখে ঢাকা কাফরুল থানায় এবং ১১জুলাই/১৭ তারিখে কটিয়াদী মডেল থানায় সাধারন ডায়রী দায়ের করি। সাধারন ডায়রী নং ৫৮ এবং ৪৮৫। আমার সহকর্মী নারী ডাক্তার ০১জুন/১৭ তারিখে ঢাকা কাফরুল থানায় সাধারন ডায়রী এবং ০৭জুলাই/১৭ তারিখে কটিয়াদী মডেল থানায় সাধারণ ডায়রী দায়ের করেন। সাধারণ ডায়রী নং ৫৭ এবং ২৮৫।
নারী ডাক্তার বলেন, বিভিন্ন ভূয়া ফেসবুকে আমাকে নিয়ে যেসব গুঞ্জন, রটনা ও আপত্তিকর ছবি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন বানোয়াট।
আমি থানায় জিডি দায়ের করেছি। আমি তার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে দোষী ব্যক্তিদের শাস্তি দাবী করছি।
কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা তপন কুমার দত্ত বলেন, দুইজন ডাক্তারের আপত্তিকর ছবি দেখেছি।
তারা পেশাগত দায়িত্বে যথেষ্ট দায়িত্বশীল আছেন। আমাদের উপরন্তু কর্মকর্তাগণ এ বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নিবেন।
এ বিষয়ে কটিয়াদী মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ জাকির রাব্বানী বলেন, কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দুই ডাক্তারের আপত্তিকর ছবির ব্যাপারে পুরুষ ও নারী  দুই ডাক্তার পৃথক পৃথক জিডি করেছেন।
নারী ডাক্তার বলেছেন এ ছবিগুলো ভূয়া আইডি থেকে কে বা কারা পোস্ট করেছে। পুরুষ ডাক্তার বলেন, আমাকে অনেক দিন থেকে মোবাইল ফোনে হুমকী দিয়ে আসছে।
তিনি নাম্বার উল্লেখ করে থানায় জিডি করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ