ঢাকা, শুক্রবার 21 July 2017, ৬ শ্রাবণ ১৪২8, ২৬ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

চীনের সঙ্গে ভারতের যুদ্ধ পরিস্থিতির মূলে উগ্র হিন্দুত্ববাদ

সংগ্রাম ডেস্ক : ভারতে বেড়ে চলা উগ্র হিন্দুত্ববাদই চীনের সঙ্গে যুদ্ধের কারণে পরিণত হচ্ছে। চীনের কমিউনিস্ট পার্টি পরিচালিত সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমসে নিবন্ধকার ইয়ু ইং এ মন্তব্য করেছেন। আরটিএনএন।

এতদিন চীনের অভিযোগ ছিল ভারত জোর করে তাদের সীমান্তে অনুপ্রবেশ করেছে। গত এক মাস ধরেই এই অভিযোগ করে এসেছে চীনের সরকার পরিচালিত সংবাদমাধ্যমগুলো। এবার তাদের নতুন অভিযোগের তির ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের হিন্দুত্ব নীতির দিকে।

 গ্লোবাল টাইমস লিখেছে, ভারতের সাবধান থাকা উচিত, যাতে ধর্মীয় জাতীয়তাবাদ দু’দেশকে যুদ্ধের দিকে না ঠেলে দেয়।

এতে বলা হয়েছে, নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় ভারতে হিন্দু জাতীয়তাবাদী আবেগের আগুনে ঘি পড়েছে। এই হিন্দু জাতীয়তাবাদে ভর করেই ক্ষমতায় এসেছেন মোদি। এ ধরনের অনুভূতি বৃদ্ধি পাওয়ার পর মোদি সরকার কিছুই করতে পারে নি, যার উদাহরণ হলো ২০১৪ সালের পর ভারতে মুসলিমদের বিরুদ্ধে সহিংসতা বেড়েছে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, হিন্দু জাতীয়তাবাদী মহল থেকে দিল্লীকে চাপ দেয়া হচ্ছে যেন বিদেশী রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে কূটনৈতিকভাবে কড়া আচরণ করা হয়, বিশেষত চীন ও পাকিস্তানের ক্ষেত্রে। এবার সীমান্তে যে ঝামেলা, তাও ধর্মীয় জাতীয়তাবাদীদের কথা মাথায় রেখে চীনকে টার্গেট করা ছাড়া কিছু নয়।

 গ্লোবাল টাইমসের দাবি, চীনের থেকে দুর্বল ভারত। কিন্তু তাদের রাজনীতিক ও কূটনীতিকরা চীন নীতি নিয়ে কোনো কাণ্ডজ্ঞান দেখাচ্ছেন না, বরং উগ্র হিন্দু জাতীয়তাবাদে ভর করে চলছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ