ঢাকা, সোমবার 24 July 2017, ৯ শ্রাবণ ১৪২8, ২৯ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আমার ছেলেরে ফিরাই দাও আল্লাহ তোমার ভাল করবে

খুলনা অফিস : বাবা আমার ছেলেটা সহজ সরল, নিয়মিত নামায পড়ে। ও একটা খাটের দোকানে কাজ করে। ওরে পুলিশের লোকে নিয়া গেছে। আমি দুই বার থানায় গেছি। কিন্তু তারা আমার অভিযোগ নেয় না। আমার ছেলেরে ফিরাইয়া দাও। আল্লাহ তোমার ভাল করবে। এমনিভাবে কথা বলতে বলতে কেঁদে ওঠেন পঞ্চাশোর্ধ্ব অসহায় জাহানারা। তার ছেলে সোহাগ শেখকে (২০) গত ৮ জুলাই আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর লোক পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। খুলনা সদর থানায় দু’বার অভিযোগ দিতে গেলেও তার অভিযোগ নেয়া হয়নি এমন দাবি তার। রোববার পর্যন্ত নিখোঁজ সোহাগের সন্ধান পাওয়া যায়নি। গত ৮ জুলাই বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে দোলখোলা মোড়ে দু’টি মোটরসাইকেলে চারজন লোক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে সোহাগকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এক পর্যায়ে সোহাগকে তারা হ্যান্ডকাপ পরিয়ে মোটরসাইকেলের মাঝখানে বসিয়ে নিয়ে যায়। এরপর বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও তাকে আর পাওয়া যায়নি। নগরীর দারোগাপাড়া মোড় সংলগ্ন কালুর গ্যারেজ এলাকার বাসিন্দা সোহাগের মা জাহানারা আরো  বলেন, ‘আমার ছেলে সোহাগ ৮ তারিখে নিখোঁজ হওয়ার পর আমি থানায় গিয়ে অভিযোগ দিলে আমাকে পরের দিন আসতে বলা হয়। পরদিন আমি লিখিত অভিযোগ দিতে গেলে আমাকে ফিরিয়ে দেয়া হয়।’ খুলনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এম এম মিজানুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় আমার কাছে কোন অভিযোগ আসেনি। আমার কাছে আসলে অবশ্যই তার অভিযোগ নেয়া হবে। শুধু তাই নয় আমরা বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ