ঢাকা, মঙ্গলবার 25 July 2017, ১০ শ্রাবণ ১৪২8, ৩০ শাওয়াল ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিএনপিকে নির্বাচনে নিতে হলে সহায়ক সরকার মানতে হবে

রাজশাহী : বিএনপি’র রাজশাহী মহানগরীর সদস্য সংগ্রহ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান -সংগ্রাম

রাজশাহী অফিস : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, বিএনপিকে নির্বাচনে নিতে হলে সহায়ক সরকারকে মানতে হবে। তিনি বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নাম শুনলে আওয়ামী লীগের মেজাজ খারাপ হয়ে যায়। অথচ তারা একই দাবি নিয়ে দেশে রক্তাক্ত আন্দোলন করেছে।
গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী নগরীর তেরখাদিয়া সিটি কনভেশন সেন্টারে রাজশাহী মহানগর বিএনপির সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নজরুল ইসলাম খান এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর বিএনপি’র সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল। পরিচালনা করেন, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু। এসময় নগর বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। নজরুল ইসলাম খান বলেন, বিএনপিতে গৌরব করার অনেক কিছু আছে, লজ্জার কিছুই নাই। কিন্তু আওয়ামী লীগে লজ্জিত হওয়ার অসংখ্য ঘটনা আছে। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য দিনের পর দিন আন্দোলন করেছে আওয়ামী লীগ। এই তত্ত্বাবধায়ক সরকার যখন বিএনপি চাচ্ছে তখন আওয়ামী লীগ বলছে সেটা সংবিধানে নেই। আমরা তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নয়- নির্বাচনকালীন একটি সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই। যেটা সুষ্ঠু, অবাধ এবং অংশগ্রহণমূলক হবে। দলের অধীনে নির্বাচন হলে তা সুষ্ঠু হবে না। নতুন সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। যে কোন অভিযোগ থাকলে তা দলীয় ফোরামে আলোচনা করতে হবে। দলে থেকে দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যাওয়া যাবে না, প্রয়োজনে দল থেকে পদত্যাগ করতে হবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু বলেন, সহায়ক সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে। কোন ভুয়া কমিশন দিয়ে নির্বাচন হতে দেয়া যাবে না। বিএনপি কোন নির্বাচনকে ভয় পায় না। কর্মসূচীর শুরুতে প্রধান অতিথি জাতীয় পতাকা এবং বিশেষ অতিথি দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন। পরে নতুন সদস্যপদ প্রদান ও পুরাতন সদস্যপদ নবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ