ঢাকা, বৃহস্পতিবার 20 September 2018, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

চাহিদামতো ঋণ ও প্রশিক্ষণ দিতে ব্যর্থ এসএমই ফাউন্ডেশন

অনলাইন ডেস্ক: ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প উদ্যোক্তাদের উন্নয়ন ও সহায়তার লক্ষ্যে ২০০৭ সালে এসএমই ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করে সরকার। এরপর থেকেই উন্নতমানের পণ্য উৎপাদন ও বিপণনে উদ্যোক্তার সঙ্গে ক্রেতার যোগসূত্র গড়ে তুলতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে প্রতিষ্ঠানটি।

তবে, পর্যাপ্ত তহবিল না থাকায় উদ্যোক্তাদের চাহিদামতো ঋণ সহায়তা ও প্রশিক্ষণ দিতে পারছে না সংস্থাটি। এ অবস্থায়, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উন্নয়নে ফাউন্ডেশনকে আরো শক্তিশালী করার আহ্বান উদ্যোক্তাদের।

১০ বছর আগে মাত্র ৫ হাজার টাকা নিয়ে বুটিক এ'র ব্যবসা শুরু করেছিলেন আনোয়ারা শিউলি। কর্মচারীদের বেতন ও আনুষঙ্গিক খরচ বাদে প্রতিমাসে এখন তার লাভ থাকে দেড় লাখ টাকা।

এই অবস্থানে আসার পেছনে যেমন কাজ করেছে তার মেধা ও শ্রম, তেমনি সহায়ক ভূমিকা রেখেছে এসএমই ফাউন্ডেশন।

তবে, এই নারীর মতো ভাগ্য সহায় নয় সব উদ্যোক্তার। এসএমই ফাউন্ডেশনের ঋণ সহায়তা কর্মসূচি সীমিত হওয়ায় অনেক উদ্যোক্তাই পায় না মূলধনের যোগান।

এই এসএমই প্রশিক্ষক জানান, প্রতিষ্ঠার পর দু'একটি প্রশিক্ষণ কোর্স সংযোজন ছাড়া তেমন বাড়েনি ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম।

প্রতিষ্ঠাকালে ফাউন্ডেশন পরিচালনার জন্য ২০০ কোটি টাকার তহবিল দেয় সরকার। এর মধ্যে ৬০ কোটি টাকা, চুক্তিবদ্ধ ব্যাংকের মাধ্যমে ৯ শতাংশ সুদে ঋণ দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

সংশ্লিষ্টরা জানান, যথেষ্ট তহবিল না থাকায় কাজের পরিধি বাড়ানো যাচ্ছে না। তবে, উদ্যোক্তা উন্নয়ন ইনস্টিটিউট স্থাপনসহ বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা জানান তারা।

এ পর্যন্ত ১ হাজার ২০০ উদ্যোক্তাকে ঋণ দিয়েছে ফাউন্ডেশন। বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে সহায়ক তহবিল এ কর্মসূচি বাড়ানো সম্ভব হবে বলে জানায় সংস্থাটি।-সময়টিভি নিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ