ঢাকা, মঙ্গলবার 01 August 2017, ১৭ শ্রাবণ ১৪২8, ৭ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

কালিয়াকৈরে মাদকাসক্ত ছেলের হাতে টেঁটাবিদ্ধ বাবা হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন

কালিয়াকৈর সংবাদদাতা : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার টান কালিয়াকৈর গ্রামে গত রোববার দুপুরে নেশার টাকা না পেয়ে নেশাগ্রস্ত সন্তান হান্নান মিয়ার (৩৫) হাতে টেঁটাবিদ্ধ বাবা শাহাবুদ্দিন (৬৭) হাসপাতালে কাতরাচ্ছেন। টেঁটাবিদ্ধ আহত শাহাবুদ্দিন টান কালিয়াকৈর গ্রামের মৃত কলিম উদ্দিনের ছেলে।
এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শাহাবুদ্দিনের ছেলে হান্নান মিয়া দীর্ঘদিন ধরে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছে। বিভিন্ন সময় নিজের বাড়ি থেকে টাকা চুরি করে মাদক সেবন করে যেখানে সেখানে পড়ে থাকতো। অনেক সময় বাড়িতে টাকা চেয়ে না পেলে বাবা ও মাকে গালিগালাজ করতো। পরিবারের লোকজন অনেক চেষ্টা করেও তাকে (হান্নান) নেশার জগৎ থেকে ফেরাতে পারেনি। হান্নান মাদক সেবন করতে না পারলে পাগলের মতো আচরণ শুরু করতো। বিভিন্ন সময় তার স্ত্রীকেও মারধর করতো। যার কারণে বাধ্য হয়েই হান্নানের স্ত্রী মালেকা বেগম তাদের দুই ছেলে দিপু মিয়া ও অপু মিয়াকে নিয়ে উপজেলার মাঝুখান এলাকায় তার বাবার বাড়ি চলে যায়।
রোবরার  বাবা শাহাবুদ্দিনের কাছে কিছু টাকা চায় তার ছেলে হান্নান। টাকা দিয়ে কি হবে জানতে চাইলে হান্নান কোন জবাব দেয়নি? তাই টাকা দিতে অস্বীকার করে তার বাবা শাহাবুদ্দিন। এতে হান্নান ক্ষিপ্ত হয়ে মাছ মারার একটি টেঁটা দিয়ে বাবা শাহাবুদ্দিনকে আঘাত করে। এতে টেঁটাটি বাবার ঘাড়ে বিদ্ধ হয়। এসময় বাবা শাহাবুদ্দিন মাটিতে লুটিয়ে পড়লে ছেলে হান্নান দৌড়ে পালিয়ে যায়। তাঁর ডাক-চিৎকারে আশে-পাশে লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে টেঁটা বিদ্ধ অবস্থায় কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক অপরেশনের মাধ্যমে তাঁর ঘাড় থেকে টেঁটা বের করেন।  শাহাবুদ্দিনের তিন সন্তানের মধ্যে আব্দুল মান্নান সবার বড় আর ছোট ছেলে হলো ওয়াসিম।  তিন সন্তানই বাবার সাথে একই বাড়ীতে বসবাস করছেন।
শাহাবুদ্দিনের স্ত্রী  জয়তন নেছা জানান, আমার ছেলে হান্নান গাঁজা সেবন করে। গাঁজা খেতে না পাড়লে তার মাথা খারাপ হয়ে যায়। টাকা না দেয়ার কারণে হান্নান তার বাবাকে টেঁটা দিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যায়। শাহাবুদ্দিনের তিন ছেলের মধ্যে হান্নান দ্বিতীয় বলে জানা যায়।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ ইয়াসমিন আক্তার জানান, অপারেশনের মাধ্যমে টেঁটা বের করা হয়েছে। বর্তমানে শাহাবুদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।  
কালিয়াকৈর থানার এএসআই জাকির হোসেন জানান, এঘটনায় এখনো কোন অভিযোগ হয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আর্কাইভ