ঢাকা, রোববার 06 August 2017, ২২ শ্রাবণ ১৪২8, ১২ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অর্থমন্ত্রীর বক্তব্য আদালত অবমাননার শামিল -রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার : ষোড়শ সংশোধনী যতবার আদালত বাতিল করবে ততবার সংসদে তা পাশ করা হবে’ অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের এই বক্তব্য আদালত অবমাননার শামিল বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমদ। গতকাল শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এমন মন্তব্য করেন তিনি। রিজভী বলেন, মন্ত্রীর এই বক্তব্য বার্ধক্যজনিত বা ক্ষমতা হারানোর হতাশার বিকার। অর্থমন্ত্রী সরকারের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী। সুতরাং তার বক্তব্য সরকারেরই বক্তব্য। আদালতের রায় নিয়ে মন্ত্রীর এ ধরনের বক্তব্য সুস্পষ্টভাবে আদালত অবমাননার শামিল এবং আইনের শাসনের প্রতি চরম ধৃষ্টতা।
তিনি আরো বলেন, ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণার পর সরকারের গদির নীচে ভূমিকম্প শুরু হয়ে গেছে। এই রায়ের পর বর্তমান ভোটারবিহীন সরকারের সকল কর্মকাণ্ড এখন সম্পূর্ণভাবে বেআইনি। ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের কারণে ভোগ-দখলের স্বার্থে আঘাত আসায় মন্ত্রী-এমপিরা এখন প্রলাপ বকছেন বলে মন্তব্য করেন রিজভী।
রিজভী আরো বলেন, সরকারের ভ্রান্তনীতির কারণে হজ্ব ব্যবস্থাপনায় চলছে চরম অব্যবস্থা। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনায় একের পর এক বাতিল হচ্ছে নির্ধারিত হজ্ব ফ্লাইট। ধর্ম মন্ত্রণালয় ও বিমান মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রীরা দায়িত্ব এড়িয়ে চলায় হজ্বযাত্রীরা দুর্ভোগে পড়েছেন অভিযোগ করে তিনি বলেন, বিমানমন্ত্রী প্রতিদিনই জাতিকে সবক দিচ্ছেন অথচ নিজের মন্ত্রণালয় যে বারবার ব্যর্থতার হ্যাট্রিক করেছে সেটি তিনি বেমালুম ভুলে যান।
এ সময় নেত্রকোনা জেলাধীন দুর্গাপুর উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে বিএনপি’র সদস্য পদ নবায়ন ও নতুন সদস্য সংগ্রহ অনুষ্ঠানে পুলিশ ও আওয়ামী সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা যৌথ হামলা চালিয়ে নেতাকর্মীদের মারধর, অফিসের আসবাবপত্র তছনছ এবং ঘটনাস্থল থেকে উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি জহিরুল হক ভূঁইয়াসহ ৯ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির এই নেতা।
‘বিএনপি’র ‘টপ টু বটম’ নেতাদের পদত্যাগ করা উচিৎ’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের এম,ন বক্তব্য প্রসঙ্গে রিজভী বলেন- ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের কারণে ভোগ-দখলের স্বার্থে আঘাত আসায় মন্ত্রী-এমপি’রা এখন প্রলাপ বকছেন। এমনিতেই ভয়াবহ দু:শাসন, দুর্নীতি, গুম, খুন, অপহরণ, বিচার বহির্ভূত হত্যা, নারী ও শিশু নির্যাতন, পাশবিক নির্যাতনের পর বগুড়ায় মা ও মেয়ের মুন্ডিত মস্তকসহ দেশব্যাপী বিরাজমান বিভৎস অনাচারে জনগণ এখন আওয়ামী সরকারকে রক্তপায়ী  দৈত্যের মতো মনে করে, তাই আওয়ামী বন্দীশালায় নিষ্পিষ্ট ও পীড়িত জনগণ প্রতিমূহূর্তে প্রহর গুণছে জালিমশাহীর পতনের।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ