ঢাকা, মঙ্গলবার 08 August 2017, ২৪ শ্রাবণ ১৪২8, ১৪ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ডিম-বেগুনের যুগলবন্দী


সবসময় একরকম রান্না খেতে কারোরই ভালো লাগে না। মাঝে মাঝে রান্নায় ভিন্নমাত্রা খাবার টেবিলের পুরো পরিবেশটাই বদলে দিতে পারে। বেগুন আর ডিমের এই তরকারিটা খেতে বেশ ভালো। এটা খিচুড়ির সঙ্গেও খাওয়া যায়। আপনিও ট্রাই করে দেখতে পারেন।
উপকরণ : ডিম ৪টা, বেগুন ২টি, আধা চা চামচ হলুদ, আধা চা চামচ মরিচ, আদাবাঁটা ১ চা চামচ, রসুনবাঁটা ১ চা চামচ, জিরা আধা চা চামচ, এলাচ ২টি গুঁড়ো করা, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, তেল-লবণ পরিমাণ মতো।
প্রণালী : ডিম সেদ্ধ চুলায় বসিয়ে বেগুন ২টা ডুমো ডুমো করে কেটে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। ডিম সেদ্ধ হলে খোসার একটি টুকরো দিয়ে ডিমের গায়ে লম্বালম্বি ৩/৪টি আঁচড় দিয়ে দিন। ডিমে হলুদ, মরিচ, লবণ মাখিয়ে হালকা করে ভেজে তুলুন। বেশি ভাজলে উপরের চামড়া শক্ত হয়ে যায়। না ভাজলেও চলে তবে একটু ভেজে নিলে দেখতে সুন্দর লাগে। ডিম ভাজার পর ওই মসলার মাঝে বেগুনের টুকরোগুলো মাখিয়ে নিন। অল্প একটু লবণ দিতে পারেন। এখন বেগুনের টুকরোগুলোও ভেজে তুলুন। একটি কড়াই চুলায় দিন। পরিমাণমতো তেল দিন। (তেল কম ব্যাবহার করার চেষ্টা করবেন)
তেল গরম হলে পেঁয়াজকুচি ও লবণ দিয়ে ভাজুন। হালকা বাদামী রঙ হলে ১ কাপ পানি দিয়ে বাকি সব মসলা দিয়ে ভালো করে কষান। প্রয়োজনে আরও পানি দিয়ে কষান। কষান হলে ডিম ও বেগুন ভাজা দিয়ে এমন আন্দাজে পানি দিন যাতে নামানোর সময় ঝোলটা মাখা মাখা থাকে। তরকারি নামানোর আগে এক চিমটি ভাজা জিরার গুড়ো উপরে ছিটিয়ে নামিয়ে ভাত/রুটি বা খিঁচুড়ির সাথে পরিবেশন করুন।

রেসিপি : দরবারি কাবাব
যদি আপনি কাবাব খেতে ভালোবাসেন, তাহলে হোটেলে নয়, বাড়িতে বসেই দরবারি কাবাব   তৈরি করুন। পছন্দের এই কাবাব তৈরি করতে জেনে নিন রেসিপি-
উপকরণ : ১ কাপ পানি ঝরানো দই, সবুজ মুগ ডাল ৪০০ গ্রাম, ২ টেবিল চামচ ঘি, ১ চা চামচ জিরা, লবণ স্বাদমতো, ১ চা চামচ মরিচের গুঁড়া, হাফ চামচ গরম মশালা, ১ চা চামচ আদাবাঁটা
পদ্ধতি : ভেজানো ডাল থেকে পানি বের করে আলাদা করে রাখুন। এবার একটা কড়াইয়ে ঘি গরম করতে দিন, তাতে জিরা ফোরণ দিন। ফুটে উঠলে ডাল ও  লবন দিয়ে নাড়তে থাকুন। আভেন মিডিয়ামে রেখে পাঁচ মিনিট ধরে রান্না করুন। এবার আভেন বন্ধ করে নামিয়ে ঠান্ডা করতে দিন।
একটি ফুড-প্রশেসরে গ্রিন্ড করতে দিন। অল্প পানি দিয়ে গ্রেন্ড করুন। এবার তাতে অল্প লবন, চিলি পাউডার, গরম মশালা, আদা বাটা দিয়ে আবার গ্রিন্ড করুন। নরম মিশ্রণটির উপর পানি ঝরানো দই দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণটি ১২টি ছোট ছোট বলের আকার দিন। হাতের মাঝে রেখে অল্প চাপ দিন। চ্যাপ্টা আকার নেবে।
এবার একটি প্যানে ঘি গরম করতে দিন। গরম ঘি-র উপর চ্যাপটা কাবাব গুলি দিন। একপিঠ বাদামি আকার নিলে উলটে দিন। দু’-পিঠই ভালো করে ভাজুন। এভাবেই তৈরী হবে পছন্দের দরবারি কাবাব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ