ঢাকা, মঙ্গলবার 08 August 2017, ২৪ শ্রাবণ ১৪২8, ১৪ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বস্তিবাসীকে বাদ দিয়ে সমাজের উন্নয়ন সম্ভব না

স্টাফ রিপোর্টার : বস্তিবাসীরাও মানুষ, তারাও সমাজের অংশ। তাদেরকে  তো আর সমাজের বাইরে রাখা যায় না। এবং তাদেরকে বাদ দিয়ে সমাজের উন্নয়নও সম্ভব নয়। তাদেরকে সমাজের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়েছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র।
গতকাল সোমবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভি আই পি লাউঞ্জে বস্তিবাসীদের নিয়ে 'পিপলস ডেভেলপমেন্ট জাস্টিস রিপোর্ট' নামে একটি গবেষণাপত্র প্রকাশ করে বক্তারা এসব কথা বলেন।
সংগঠনটির নির্বাহী পরিচালক শেপা হাফিজার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্ল্যানিং কমিশনের জেনারেল ইকোনোমিক বিভাগের সিনিয়র সচিব অধ্যাপক শামসুল আলম। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্য অধ্যাপক আখতার হুসাইনসহ আইন ও সালিশ কেন্দ্রের নেতারা।
বক্তারা বলেন, বস্তিবাসীরা সব রকম নাগরিক ও সামাজিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত। তাদের জীবন যাত্রার মান অত্যন্ত নিচে। এমনকি বস্তিবাসী শিশুরা প্রাথমিক শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ থেকেও বঞ্চিত হচ্ছে। এমতাবস্থায় সরকারের উচিৎ বস্তিবাসীদের জীবন মান রক্ষায় এগিয়ে আসা।
বক্তারা আরোও বলেন, আমরা গবেষণাপত্রের জন্য বিভিন্ন বস্তি এলাকায় গিয়ে দেখেছি, সেখানে বাবা মায়েরা পরিবারের ভরণপোষণ করতে না করতে পেরে ১০-১২ বছর বয়সেই মেয়েকে বিয়ে দিয়ে দেন। ফলে মেয়েটি যৌন নির্যাতনের শিকার হয়। আমরা ১৮ বছরের নিচে মেয়েদের ওপর নির্যাতন সাস্টেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোলের মাধ্যমে কমিয়ে আনব।
নারী শিক্ষা নিয়ে বক্তারা বলেন, বস্তিবাসী মেয়েদের শিক্ষার আওতায় আনতে হবে ও শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে। তাদের নৈতিক মূল্যবোধেরও শিক্ষা দিতে হবে।
প্রধান অতিথি অধ্যাপক শামসুল আলম বলেন, মানবতা লঙ্ঘনের সবচেয়ে নিকৃষ্টতম উদাহরণ হলো দারিদ্র। আমরা ইতিমধ্যে দারিদ্র্যতার হার অর্ধেকে নামিয়ে এনেছি। আমাদের লক্ষ্য হলো কিভাবে দারিদ্রতা আরোও কমিয়ে আনা যায়। এছাড়াও দেখা যায় যে মেয়েরা মাধ্যমিকের পরেই বিয়ের কারণে ঝরে পড়ছে। এ থেকে কিভাবে পরিত্রাণ পাওয়া যায় তার কৌশলগত পরিকল্পনা আমরা সপ্তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় নিয়েছি।
তিনি আরোও বলেন, আমাদের নাগরিক দায়িত্বেরও একটা ঘাটতি আছে। নাগরিকদেরও সচেতন হতে হবে। নাগরিকরা সচেতন হলে সরকারের পক্ষে কাজ করা সহজ হয়। এছাড়াও তিনি জনপ্রতিনিধি ও গণমাধ্যমকে এতে সম্পৃক্ত করার তাগিদ দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ