ঢাকা, মঙ্গলবার 08 August 2017, ২৪ শ্রাবণ ১৪২8, ১৪ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

৪১৮ জন যাত্রী নিয়ে সিলেট-জেদ্দা সরাসরি হজ্ব ফ্লাইটের যাত্রা

সিলেট ব্যুরোঃ গতকাল বিকেলে সিলেট থেকে ৪১৮ জন হজ্ব যাত্রী নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স প্রথম সরাসরি হজ্ব ফ্লাইট শুরু করেছে। এ উপলক্ষে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চেয়ারম্যান এয়ার মার্শাল মোহাম্মদ ইনামুল বারী। গতকাল সোমবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, প্রথমবারের মতো সিলেট থেকে জেদ্দায় সরাসরি হজ্বযাত্রীগণ পৌঁছতে পারবেন। এটি একটি বড় ধরনের সফলতা। হজ্বযাত্রীরা নিরাপদে গমন করতে পারবেন। এ বছর সিলেট থেকে আরো ৩ টি সরাসরি ফ্লাইট আগামী ২৩, ২৪ ও ২৫ আগস্ট ছেড়ে যাওয়ার কথা রয়েছে। তিনি আরো জানান, যাত্রী থাকলে সিলেট থেকে সরাসরি ফ্লাইট দিতে কোন বাধা নেই।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিমান বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ.এম. মোসাদ্দিক আহমেদ। আজিজুল ইসলামের পরিচালনায় এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খন্দকার সিপার আহমদ, ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্টেশন ব্যবস্থাপক মোল্লা আজিজুর রহমান, অ্যাটাব সিলেট অঞ্চলের সভাপতি আব্দুল জব্বার জলিল ও হাব সিলেটের সভাপতি খাজা মঈন উদ্দিন জালালাবাদী। অনুষ্ঠানে দোয়া পরিচালনা করেন ক্বারী গোলাম আহমেদ। ওসমানীনগরের কাগজপুর গ্রামের আখতার হোসেন তার মাকে নিয়ে হজ্ব করতে সৌদী আরবে যাচ্ছেন। আলাপকালে আখতার বলেন, সিলেট থেকে সরাসরি ফ্লাইট থাকায় আমরা অনেক ভোগান্তি থেকে রক্ষা পেয়েছি। এ জন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান। হজ্ব যাত্রী সাংবাদিক ইকবাল মাহমুদ বলেন, সিলেট-জেদ্দা ফ্লাইট এ অঞ্চলের হজ্বযাত্রীদের জন্য সুখকর বিষয়। কারণ ঢাকা বিমানবন্দরে যাত্রীদেরকে নানা রকম বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। অন্তত সে রকম বিড়ম্বনা থেকে সিলেটের যাত্রীরা মুক্তি পাবেন।
অ্যাটাব সিলেটের সভাপতি আব্দুল জব্বার জলিল বলেন, আমাদের দাবি ছিল সিলেট থেকে মোট ৫ টি সরাসরি ফ্লাইট দেবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। কিন্তু আপাতত তারা মোট ৩ টি ফ্লাইট দিতে সম্মতি দিয়েছেন। ভবিষ্যতে সিলেট থেকে জেদ্দায় সরাসরি ফ্লাইটের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ