ঢাকা, মঙ্গলবার 08 August 2017, ২৪ শ্রাবণ ১৪২8, ১৪ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

একপেশে ভূমিকা কোন সাংবাদিকতার মধ্যে পড়ে না

বাংলাট্রিবিউন, বিডিনিউজসহ কিছু গণমাধ্যমে সিলেটে দুই ছাত্রলীগ কর্মীর উপর হামলার সাথে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।
গতকাল সোমবার দেয়া  যৌথ প্রতিবাদ বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত ও সেক্রেটারি জেনারেল মোবারক হোসাইন বলেন, সারাদেশে ছাত্রলীগের অব্যাহত সন্ত্রাস,ধর্ষণ, টেন্ডারবাজীসহ নানা অপকর্ম থেকে দেশের মানুষের দৃষ্টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতেই এই ঘটনার সাথে পরিকল্পিত ভাবে ছাত্রশিবিরকে জড়ানো হয়েছে। প্রতিবেদনে ছাত্রলীগের চিহ্নিত সন্ত্রাসী তুষারের বানোয়াট বক্তব্যের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে দুই ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়েছে ছাত্রশিবির। যা সম্পূর্ণ বানোয়াট ও মিথ্যা। এ ঘটনার সাথে ছাত্রশিবিরের দূরতম কোন সম্পর্ক নেই। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে হেলমেট পড়া অবস্থায় তাদের উপর হামলা হয়েছে। তাহলে হামলাকারীরা যে ছাত্রশিবিরেরই ছিল তা নিশ্চিত হলো কিভাবে? প্রতিবেদনে শিবিরের নাম যুক্ত করে দিলেও হামলাকারী একজনের নামও উল্লেখ করতে পারেনি প্রতিবেদক। তাহলে কিসের ভিত্তিতে এখানে ছাত্রশিবিরকে জড়ানো হয়েছে? মূলত বিগত কয়েকদিন ধরে ওই এলাকার কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মাঝে সিনিয়র-জুনিয়র নিয়ে কোন্দল চলে আসছিল। তার জের ধরে এখানে একাধিক বার অভ্যন্তরীণ কোন্দলে জড়িয়ে মারামারিতে লিপ্ত হয়ে নিজেদের মধ্যে রক্ত ঝরিয়েছে ছাত্রলীগ যা গণমাধ্যমের কল্যাণে দেশবাসী দেখেছে। গতকালও এই হামলাও সেই কোন্দলের কারণেই হয়েছে তাতে কোন সন্দেহ নেই।   
 নেতৃদ্বয় বলেন, অতিউৎসাহি হয়ে প্রতিবেদনগুলোতে ছাত্রলীগ নেতার বক্তব্য নেয়া হলেও এমন নিকৃষ্ট অভিযোগের ব্যাপারে ছাত্রশিবিরের কারো বক্তব্যে নেয়া হয়নি। এমন একপেশে ভূমিকা কোন সাংবাদিকতার মধ্যে পড়ে না। আমরা আশা করি সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে এসব গণমাধ্যম দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিবেন।      
 নেতৃদ্বয় সত্য প্রকাশের স্বার্থে এ ধরণের মিথ্যা ও ভিত্তিহীন প্রতিবেদন প্রকাশ থেকে বিরত থাকতে সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদক ও গণমাধ্যমের প্রতি আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ