ঢাকা, সোমবার 14 August 2017, ৩০ শ্রাবণ ১৪২8, ২০ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

‘খায়রুল হক জাতির সঙ্গে প্রতারণা করেছেন’

স্টাফ রিপোর্টার : সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় নিয়ে আইন কমিশনের চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হকের বক্তব্যের পর তাকে অপসারণ ও গ্রেফতারের দাবি করেছে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম। এই সমাবেশে সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের সম্পাদক ও ফোরামের মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, খায়রুল হক তত্ত্ববধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করে জাতির সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। প্রকাশ্য আদালতে ঘোষিত রায় বদলে তিনি এই প্রতারণা করেছে। 

গতকাল রোববার দুপুর ২টার দিকে সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে শতাধিক আইনজীবী সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনে বিক্ষোভ মিছিল করেন। মিছিল শেষে আইনজীবী ভবনের নিচে এক সমাবেশে এ দাবি জানান। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক সানাউল্লাহ মিয়া, সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার বরুদ্দোজা বাদল, ফোরামের নেতা এডভোকেট মনির হোসেন, ড.আরিফা জেসমিন নাহিন, এডভোকেট গাজী কামরুল ইসলাম সহল, এডভোকেট আইয়ুব আলী আশ্রাফী প্রমুখ।

সমাবেশে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, বিচারপতি খায়রুল হক ডাবল স্ট্যান্ডার্ড গ্রহণ করেছেন। তিনি তার রায়ে বলেছেন, বিচারপতিদের অবসরগ্রহণের পর চাকরিতে যোগদান করা উচিত নয়। আবার তিনি সরকারি চাকরি নিয়েছেন। তিনি প্রধান বিচারপতি ও ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে আপত্তিকর বক্তব্য দিয়ে চাকরিবিধি লঙ্ঘন করেছেন।

মাহবুব উদ্দিন খোকন আরো, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের বাতিলের মামলায় প্রকাশ্য আদালতে যে রায় দেয়া হয়েছিল, ১৬ মাস পর সেই রায় পাল্টে দিয়েছেন। এ রায় দিয়ে তিনি জাতির সঙ্গে প্রতারণা করেছেন। অনেকে বলেছেন, তাকে দেশ ছাড়া করতে হবে। আমি বলছি, তাকে গ্রেফতার করে জনতার আদালতে বিচার করতে হবে।

ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে সরকারের মন্ত্রীরা আপত্তিকর বক্তব্য দিচ্ছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ষোড়শ সংশোধনীর রায় ভালোভাবে না পড়ে তারা লাগামহীন বক্তব্য দিচ্ছেন। অর্থমন্ত্রী বলেছেন, যতবার ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করবে ততবার সংসদে তা পাস করা হবে। এটা বলে তিনি আদালত অবমাননা করেছেন। একমাত্র তিনি তার বয়সের কারণে মাথা ঠিক নেই বলে বাঁচতে পারেন।

খাদ্যমন্ত্রী সর্বোচ্চ আদালত থেকে সাজাপ্রাপ্ত উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, রায় নিয়ে খাদ্যমন্ত্রী কী বলেছেন। অথচ তিনি সর্বোচ্চ আদালত থেকে সাজাপ্রাপ্ত।

দেশব্যাপী আজ সোমবার আইনজীবী ফোরামের কর্মসূচি চলবে বলে জানান মাহবুব উদ্দিন খোকন। কর্মসূচিতে তিনদফা ঘোষণা করা হয়। প্রথম দফায়, সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে খায়রুল হকের বক্তব্য আদালত অবমাননাকর হওয়ায় তাকে অপসারণ ও গ্রেফতারের দাবি করা হয়। দ্বিতীয় দফায়, রায় নিয়ে সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্য প্রত্যাহার ও তৃতীয় দফায় নিম্ন আদালতের বিচারকদের জন্য শৃঙ্খলাবিধি তৈরির দাবি জানানো হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ