ঢাকা, বুধবার 16 August 2017, ০১ ভাদ্র ১৪২8, ২২ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বঙ্গবন্ধু কেবল স্বাধীনতা এনে দেননি দেশের স্বাধীনতা রক্ষাও করেছিলেন

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি)’র ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর  কে.এম গোলাম মহিউদ্দিন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কেবল স্বাধীনতা এনে দেননি দেশের স্বাধীনতা রক্ষাও করেছিলেন। তাই স্বাধীনতা অর্জনের পর তাঁর প্রথম কাজ ছিল এ দেশ থেকে ভারতীয় সেনাবাহিনী প্রত্যাহার করার উদ্যোগ নেয়া। বাংলাদেশের অস্তিত্বের সাথে বঙ্গবন্ধুর নামটি সবসময় জড়িয়ে থাকবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান প্রকৃত অর্থেই গণতন্ত্রের মানসপুত্র ছিলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ৪২তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গতকাল আইআইইউসি আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর কে.এম গোলাম মহিউদ্দিন এ কথা বলেন। আইআইইউসি’র প্রো ভাইস চ্যান্সেলর (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. দেলাওয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সেমিনার হলে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, আইআইইউসি’র রেজিস্ট্রার কর্নেল মুহাম্মদ কাসেম পিএসি (অবঃ) এবং কলা ও মানবিক অনুষদের ডীন প্রফেসর মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর। স্বাগতঃ বক্তব্য রাখেন স্টুডেণ্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের পরিচালক আ জ ম ওবায়েদুল্লাহ এবং ছাত্রদের পক্ষে ইকনোমিক্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের ছাত্র তানভীরুল ইসলাম। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন অতিরিক্ত পরিচালক মোহাম্মদ মামুনুর রশিদ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর কে.এম গোলাম মহিউদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধুর যাদুময় নেতৃত্ব জাতিকে স্বাধীনতার স্বাদ এনে দিয়েছিল। এ দেশের স্বাধীনতা অর্জনের জন্য প্রথমেই এবং বারবার যে নামটি উচ্চারিত হবে তা হল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। তাঁর অতুলনীয় রাজনৈতিক প্রজ্ঞা ছিল বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু সমাজতন্ত্রী ছিলেন না, তিনি নির্ভেজাল জাতীয়তাবাদী ছিলেন। আইআইইউসি’র রেজিস্ট্রার কর্নেল মুহাম্মদ কাসেম পিএসি (অবঃ) বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডের মত এমন শোকাবহ ঘটনা বিশ্বের আর কোথাও ঘটেনি। স্বাধীনতা লাভের খুব অল্প সময়ের মধ্যে স্বাধীনতার নায়ককে হত্যা করা হয়। কোন মানবিক মানুষ এই হত্যাকান্ডকে সমর্থন করতে পারেনা। কলা ও মানবিক অনুষদের ডীন প্রফেসর মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর বলেন, বঙ্গবন্ধুকে জাতির পিতা বলতে এখনও কেউ কেউ হীনমন্যতায় ভোগেন। এই হীনমন্যতা থেকে বেরিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মত নেতা একটি দেশে একটি জাতিতে বারবার জন্মায় না। সভাপতির বক্তব্যে প্রফেসর ড. মোঃ দেলাাওয়ার হোসেন বলেন একটি রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের পরও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান বিভেদের রাজনীতি করেন নি। তিনি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করতে চেয়েছিলেন। তিনি কোন নির্দিষ্ট দলের নেতা নন, তিনি জাতির নেতা। আলোচনা সভা শেষে বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনা করে মুনাজাত করা হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ