ঢাকা, বুধবার 16 August 2017, ০১ ভাদ্র ১৪২8, ২২ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

যৌতুকের দাবীতে নির্যাতনের শিকার গৃহবধূ এখন পিত্রালয়ে

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) সংবাদদাতা: গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার যৌতুকের দাবীতে নির্যাতনের শিকার হয়ে অন্ত:সত্ত্বা গৃহবধূ জোসনা বেগম এখন পিত্রালয়ে অবস্থান করছে। সেখানেও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন তিনি। গত ২০১৬ সালের ২২ জানুয়ারী রেজিস্ট্রিকৃত কাবিননামা মুলে উপজেলার কে কৈ কাশদহ গ্রামের আব্দুর রহমানের কন্যা মোছাঃ জোসনা বেগমের সাথে এক লাখ ৪০ হাজার টাকা দেনমোহরানা ধার্য্যে বিয়ে হয় একই গ্রামের অহেদ আলীর পুত্র আব্দুর রাজ্জাকের। বিয়ের পর থেকেই স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন যৌতুকের দাবীতে জোসনাকে  শারীরিক ও মানুসিক ভাবে নির্যাতন করতে থাকে। এঅবস্থা চলতে থাকায় গত ১৬ জুলাই/১৭ জোসনা বেগমকে আবারও যৌতুকের দাবীতে স্বামী, শ্বশুড় ও শ্বাশুড়ী অমানবিক নির্যাতনসহ চর-থাপ্পড় ও লাথি মারে এবং চুলের মুঠি ধরে টানা হেঁচড়া করে। এতে ৪  মাসের অন্ত:সত্ত্বা গৃহবধূ জোসনা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। প্রতিবেশি লোকজন নির্যাতনের হাত থেকে জোসনাকে উদ্ধার করে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে দেয়। সেখানে ৪ দিন চিকিৎসার পর পিত্রালয়ে অবস্থান নিয়ে গত ২৩ জুলাই বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল গাইবান্ধায় একটি মামলা দায়ের করে জোসনা। আদালত থেকে আসামীদের বিরুদ্ধে সমন  জারী করা হয়েছে। সমন নোটিশ পেয়ে আসামীরা মামলা তুলে নেয়াসহ বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করে হুমকি দিচ্ছে বলে জোসনা বেগম জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ