ঢাকা, মঙ্গলবার 22 August 2017, ০৭ ভাদ্র ১৪২8, ২৮ জিলক্বদ ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রামগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় বাবা ও ছেলেকে কুপিয়ে জখম

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা: রামগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় বাবা ও ছেলেকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে শাওন নামের এক সন্ত্রাসী। আজ বুধবার বিকাল ৫টায় পৌর জগতপুর গ্রামের হোগলাবাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত বাবা আবুল বাশার (৫০) ও ছেলে মোঃ সুজন হোসেন (২২)কে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নোয়াখালী জেনারেল হসপিটালে রেফার করা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে ও আহতদের আত্মীয়রা জানান, সোমবার স্থানীয় দোকানের সামনে লুডু খেলাকে কেন্দ্র করে জগতপুর হোগলা বাড়ির আবুল বাশারের ছেলে নসিমন চালক সুজন (২২)কে মারধর করে একই বাড়ির গোলাম সরোয়ার মন্টু মিয়ার সন্ত্রাসী ও বখাটে ছেলে শাওন।
বিষয়টি স্থানীয় গন্যমান্যদের জানানোর অপরাধে আজ মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় সুজন রামগঞ্জ থেকে নসিমন চালিয়ে বাড়িতে যাওয়ার পথে হোগলা বাড়ির সামনে আবারো প্রচন্ড মারধর করে উপরে তুলে আছাড় দিলে সুজন সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়ে।
খবর পেয়ে সুজনের বাবা আবুল বাশার বাড়ি থেকে ছুটে এসে স্থানীয় কু-তলী থেকে রিক্সা নিয়ে ছেলেকে হসপিটালে আনার চেষ্টা করলে সন্ত্রাসী শাওন দারালো ছুরি নিয়ে বাবা আবুল বাশারকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পেটে ছুরি ডুকিয়ে দেয়। এসময় তার আর্তচিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে আসলে সন্ত্রাসী শাওন পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্ত্যব্যরত চিকিৎসক মাহামুদ হোসেন চৌধুরী তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হসপিটালে রেফার করেন। অভিযোগ রয়েছে বিগত মাসখানেক পূর্বে মোঃ শাওন তার আপন বড় ভাই বাবুর স্ত্রী লাকি বেগমের একটি চোখ ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুঁছিয়ে তুলে ফেলার চেষ্টা চালায়। বর্তমানে লাকী বেগম ভয়ে অন্যত্রে বসবাস করছেন।
রামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ তোতা মিয়া জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সন্ত্রাসী শাওনকে গ্রেফতার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ