ঢাকা, শুক্রবার 25 August 2017, ১০ ভাদ্র ১৪২8, ০২ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রাজশাহীতে দুদকের হাতে ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেফতার আরেকজন লাপাত্তা

রাজশাহী অফিস : রাজশাহীতে সোনালী ব্যাংকের এক কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তার নাম হাসান মোহাম্মদ খালেদুল হক (৩৫)। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহী মহানগরীর ভেড়িপাড়া মোড় থেকে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের কর্মকর্তারা তাকে গ্রেফতার করেন।

 সোনালী ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার খালেদুল হকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, জেলার তানোর উপজেলা শাখা কার্যালয়ে কর্মরত থাকাকালে তিনি ব্যাংকের ওই শাখার আইটি কর্মকর্তা নাজির হোসেনের সঙ্গে যোগসাজোস করে ১৮ লাখ ৯০ হাজার সরকারি টাকা লোপাট করেছেন। এ অভিযোগে বুধবার সকালে খালেদুল হক ও নাজির হোসেনের বিরুদ্ধে তানোর থানায় আলাদা দুটি মামলা করেন দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারি পরিচালক আরিফ হোসেন। দুদক কর্মকর্তা আরিফ হোসেন জানান, ২০১৪ সালের ৯ এপ্রিল থেকে ২০১৫ সালের ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত খালেদুল ও নাজির সরকারি একটি ব্যাংক হিসাব থেকে অন্য একটি ব্যাংকের হিসাবে ১৮ লাখ ৯০ হাজার টাকা স্থানান্তর করেন। এরপর সে টাকা তারা তুলে নিয়ে আত্মসাত করেন। এছাড়া শুধু নাজির হোসেনের বিরুদ্ধে এক কোটি ১৮ লাখ টাকা আত্মসাতের আরো একটি অভিযোগ আছে। এ ঘটনাতেও দুদক একটি মামলা করেছিল। নাজির হোসেনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান দুদক কর্মকর্তা আরিফ হোসেন। গ্রেফতার ব্যাংক কর্মকর্তা খালেদুল হক রাজশাহীর পবা উপজেলার ললিতাহার গ্রামের একরামুল হকের পুত্র। আর পলাতক নাজির হোসেন রাজশাহী মহানগরীর বহরমপুর ব্যাংক কলোনি এলাকার গোলাম মোস্তফার ছেলে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ