ঢাকা, শনিবার 26 August 2017, ১১ ভাদ্র ১৪২8, ০৩ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রামগতিতে দুই পক্ষে সংঘর্ষ, দোকানপাট ভাঙচুর, আহত ৩৫

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা: লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরপোড়াগাছা ইউনিয়নের চর কলাকোপা হারুন বাজারে শনিবার রাতে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৩৫ জন আহত হয়েছেন। ওই সময় উভয় পক্ষের পাঁচটি দোকানে ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে শনিবার রাত ৯টার দিকে স্থানীয় চৌধুরী মাঝি ও আবদুল আলীর পরিবারের লোকজনের মধ্যে ওই সংঘর্ষ হয়। ওই সময় আবদুল আলীর মুদি দোকান, শাহেদ আলী রতন ওরফে জীবনের স্টেশনারি দোকান, চৌধুরী মাঝির ছেলে আজাদ উদ্দিনের মুদি দোকান, মেয়ে জামাতা আবুল কাশেমের মুদি দোকান ও নোমান উদ্দিনেরর ভূষা মালের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করা হয়। চৌধুরী মাঝির ছেলে আজাদ উদ্দিন জানান, ৭-৮ বছর আগে আবদুল আলীর ভাতিজা মো. রফিকের সঙ্গে তাঁর চাচা জহির উদ্দিনের মেয়ে রিনা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে রফিক ও তাঁর পরিবারের লোকজন নানা অজুহাতে রিনাকে মারধর করে। কয়েকদিন আগেও তাঁকে মারধর করা হয়। এ নিয়ে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় হারুন বাজারে রিনার ভাসুর বেচু মিয়া ও কবিরের সঙ্গে জহির উদ্দিনের কথাকাটাকাটি হয়। ওই সময় এক পর্যায়ে চৌধুরী মাঝি ও জহিরকে মারধর করা হয়। এ ঘটনার জের ধরে শনিবার রাতে উভয় পক্ষে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের সময় তাঁদের তিনটি দোকান ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়। সংঘর্ষে তাঁদের পক্ষের চৌধুরী মাঝি, জহির উদ্দিন, মুরাদ উদ্দিন, জামাল উদ্দিন ও মো. শফিকসহ ১৫ জন আহত হন। তাঁদের কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ