ঢাকা, মঙ্গলবার 29 August 2017, ১৪ ভাদ্র ১৪২8, ০৬ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বোমা বিস্ফোরণে নিহত ব্যক্তি নাটোরের আলম প্রামানিক

ভালুকা (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা : ভালুকা উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের কাশর গ্রামে রোববার সন্ধ্যায় বোমা বিস্ফোরণে নিহত ব্যক্তির নাম আলম প্রামানিক (৩৫)। তার বাড়ী নাটোর জেলা সদরের তেলকূপীপাড়া গ্রামে। সে জেএমবির একজন সক্রীয় সদস্য। দীর্ঘদিন যাবৎ পুলিশ তাকে খুঁজছিল। গতকাল সোমবার সকালে জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, বিপিএম, পিপিএম’র নেতৃত্বে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের একটি বিশেষজ্ঞ দল ও বিভিন্ন আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে ওই বাসায়  অভিযান চালিয়ে ঘরের ভিতরে থাকা ১টি হ্যান্ড গ্রেনেন্ড ও ৩টি শক্তিশালী বোমার সন্ধান পান। এ সময় তারা হ্যান্ড গ্রেনেন্ডসহ একটি বোমা  ঘরের বাহিরে নিয়ে নিষ্ক্রীয় করেন। বাকি  ২টি বোমা অধিক শক্তিশালী হওয়ায় ঘরের মধ্যেই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। বোমার বিস্ফোরণের সময় আধা পাকা বাড়ির টিন সেট ঘরের চালা ছিন্ন ভিন্ন হয়ে উড়ে যায়। বিকট শব্দে আশ পাশের এলাকা প্রকম্পিত হয়ে উঠে। এ সময় আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা বাসার ভিতর থেকে বিপুল পরিমাণ বোমা তৈরীর বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করেন। অপরদিকে গতকাল সোমবার পুলিশ নিহত জঙ্গীর লাশ ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। বোমা বিস্ফোরণের পরপরই নিহত জঙ্গীর স্ত্রী পারভীন আক্তার (২৬), ২ সন্তান ইব্রাহিম (৭) ও ইস্রাফিল (৬ মাস)কে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এলাকার সব মসজিদ থেকে তাদেরকে ধরিয়ে দেওয়ার জন্য জনগণের সহায়তা চেয়ে মাইকিং করান। পরে রাত পৌনে ৯টার দিকে স্থানীয় লোকজন আইডিয়াল মোড় এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। এছাড়া ঘটনার  রাতেই পুলিশ ওই বাড়ীর মালিক আজিম উদ্দিন (৫৫), তার স্ত্রী ফাতেমা (৫০), ২ ছেলে হাসান (২০) ও আতিক (১৬)কে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতরা বর্তমানে পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। বিস্ফোরণের পর রাতেই ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার সালেহ উদ্দিন আহম্মেদ, রেঞ্জ ডি.আই.জি নিবাস চন্দ্র মাঝি, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, র‌্যাব-১৪ এর অধিনায়কসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য ও প্রশাসনের শীর্ষ স্থানীয় কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনার দিন রোববার সন্ধ্যা ৬টা থেকে গতকাল সোমবার বেলা ৩টা পর্যন্ত টানা ২২ ঘন্টার শাষরুদ্ধকর জঙ্গী বিরোধী সফল অভিযান শেষে ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার ঘটনাস্থলে উপস্থিত গণ মাধ্যম কর্মীদেরকে আনুষ্ঠানিক ভাবে এসব তথ্য প্রদান করেন। ব্রিফিং কালে শিল্প পুলিশের এসপি বিল্লাল হোসেন, এ.এসপি সার্কেল গফরগাঁও রায়হানুল ইসলাম ও ভালুকা মডেল থানার ওসি মামুন অর রশিদ, পিপিএম উপস্থিত ছিলেন। এ সময় পুলিশ সুপার আরো বলেন বোমা বিস্ফোরণে নিহত আলম প্রমানিক জেএমবির একজন সক্রীয় সদস্য ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ