ঢাকা, বুধবার 06 September 2017, ২২ ভাদ্র ১৪২8, ১৪ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মিয়ানমারে মানবাধিকার লঙ্ঘনে এরদোগানের তীব্র নিন্দা ও উদ্বেগ

সংগ্রাম ডেস্ক : তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েব এরদোগান গত সপ্তাহে বলেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে গণহত্যা চলছে।

গতকাল মঙ্গলবার এরদোগান সরাসরি ফোন করেছেন মিয়ানমারের সবচেয়ে ক্ষমতাবান রাজনৈতিক নেত্রী অং সান সু চিকে।

বার্তা সংস্থা এএফপি এবং রযটারস প্রেসিডেন্টের মুখপাত্রদের উদ্ধৃত করে জানাচ্ছে, এরদোগান ফোনালাপে সু চির কাছে রোহিঙ্গা মুসলিমদের মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে উদ্বেগ এবং নিন্দা জানিয়েছেন।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান মিয়ানমারের নেত্রী সু চিকে বলেন, রোহিঙ্গা সঙ্কট পুরো মুসলিম বিশ্বের জন্য গভীর উদ্বেগ তৈরি করেছে।

তিনি বলেন, নিরপরাধ মানুষের ওপর সন্ত্রাসী তৎপরতার নিন্দা করছে তুরস্ক। মিয়ানমারে যে মানবিক সঙ্কট তৈরি হয়েছে সেটি উদ্বেগ এবং ক্ষোভের বিষয়।

তবে সু চির উত্তর বা প্রতিক্রিযা সম্পর্কে এখন পর্যন্ত কিছু জানা যাযনি।

তুরস্কের সরকারি বার্তা সংস্থা আনাদলু জানিয়েছে, রোহিঙ্গা পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখতে এবং কথা বলতে প্রেসিডেন্ট এরদোগান তার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসোগলুকে বুধবার বাংলাদেশে পাঠাচ্ছেন।

 রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে তুরস্ক বিশেষ তৎপর হয়ে উঠেছে।

ঈদের ছুটির সময় প্রেসিডেন্ট এরদোগান এই সঙ্কট নিয়ে বিভিন্ন মুসলিম দেশের নেতাদের সাথে টেলিফোনে কথা বলেছেন। এমনকী জাতিসংঘ মহাসচিব অন্তোনিও গুতেরেজের সাথেও কথা বলেছেন তিনি।

তুরস্কের নেতা বলেছেন, এ মাসের শেষে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সভায় তিনি রোহিঙ্গা ইস্যুটি তুলবেন।

এদিকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উদ্বেগের মাঝেই মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে ঘর পালানো রোহিঙ্গাদের ঢল অব্যাহত রয়েছে। জাতিসংঘ বলছে, গত ১১ দিনে ১ লাখ ২৩ হাজার রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে আশ্রয়ের খোঁজে বাংলাদেশে ঢুকেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ