ঢাকা, বুধবার 06 September 2017, ২২ ভাদ্র ১৪২8, ১৪ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আজ বিমানের ফিরতি হজ্ব ফ্লাইট শুরু

 

স্টাফ রিপোর্টার : আজ বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে ফিরতি হজ্ব ফ্লাইট। হজ্ব শেষে হাজীদের দেশে ফিরিয়ে আনতেই এই ফিরতি ফ্লাইট শুরু হচ্ছে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফিরতি হজ্ব ফ্লাইট চলবে ৫ অক্টোবর পর্যন্ত। চলতি মৌসুমে বাংলাদেশ থেকে সৌদি আরবে গিয়েছেন মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ২২৯ জন। ভিসা পেয়েও শেষ পর্যন্ত যেতে পারেননি ৩৬৭ জন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স জানিয়েছে, হজ্বযাত্রী পরিবহনে বিমান নিজস্ব সুপরিসর বোয়িং ৭৭৭ উড়োজাহাজের পাশাপাশি ৪০৬ আসনের লিজের বোয়িং ৭৭৭-২০০ উড়োজাহাজ ব্যবহার করছে। হজ্বযাত্রীদের সুবিধার্থে বিমান ঢাকা থেকে যাত্রা পূর্বে হজ্বযাত্রীদের ফিরতি ফ্লাইটের বোর্ডিং কার্ড দিয়ে দিয়েছে। ১৬৯টি ফ্লাইটে হাজীরা দেশে ফিরবেন। প্রত্যেক হজ্বযাত্রী বিনামূল্যে সর্বাধিক ২টি ব্যাগে ৪৬ কেজি মালামাল আনতে পারবেন। বিজনেস ক্লাসের জন্য সর্বাধিক ২টি ব্যাগে ৫৬ কেজি মালামাল বহন করতে পারবেন। কেবিন ব্যাগেজে ৭ কেজি মালামাল সঙ্গে রাখতে পারবেন হজ্বযাত্রীরা। তবে কোনোভাবেই প্রতি পিস ব্যাগের ওজন ২৩ কেজি এবং বিজনেস ক্লাসে ২৮ কেজির বেশি হতে পারবে না।

প্রত্যেক হাজীর জন্য ৫ লিটার জমজমের পানি ঢাকায় নিয়ে আসা হয়েছে, হাজীরা দেশে ফিরলে তা দেয়া হবে। হজ্ব যাত্রীরা যেকোনও ধারালো বস্তু যেমন ছুরি, কাঁচি, নেইল কাটার, ধাতব নির্মিত দাঁত খিলন, কানও পরিষ্কারক, তাবিজ ও গ্যাস জাতীয় বস্তু যেমন অ্যারোসল এবং ১০০ (এমএল)-এর বেশি তরল পদার্থ হ্যান্ডব্যাগেজে বহন করা যাবে না।

বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এএম মোসাদ্দিক আহমেদ বলেন, চলতি হজ্ব মৌসুমে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সর্বোচ্চ সংখ্যক (৬৪ হাজার ৮৭৩ জন) হজ্বযাত্রীকে নিরাপদে সৌদি আরবে পৌঁছে দিয়েছে। তাদের নিরাপদে ফিরেয়ে আনতে বিমানের সব ধরনের প্রস্তুতি রয়েছে। চলতি মৌসুমে বিমানের পূর্বনির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা ৬৩ হাজার ৫৯৯ জন কিন্তু বিমান অতিরিক্ত ১ হাজার ২৭৪ জন হজ্বযাত্রী নিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ