ঢাকা, বুধবার 06 September 2017, ২২ ভাদ্র ১৪২8, ১৪ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

চলনবিলে ঈদুল আযহায় পিকনিক স্পটগুলোতে পর্যটকদের উপচেপড়া ভিড়

চলনবিলের তাড়াশ-গুরুদাসপুর ডুবোসড়কে কুন্দইলে দর্শনার্থীদের ভিড়

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) থেকে শাহজাহান : ঈদুল আজহা উপলক্ষে উৎসব মুখর হয়ে উঠেছে চলনবিলের বিভিন্ন দর্শনাস্থল স্থানগুলো। ঐতিহাসিক চলনবিলের সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলায় পড়ন্ত বিকেলে মনোমুগ্ধকর মিষ্টি বাতাশে মেঘের ছুটে চলা, পানির উপর ঢেউয়ের দৃশ্য নজর কেড়েছে দূর-দূরান্ত থেকে আগত ভ্রমন পিপাসু দর্শনার্থীদের। চলনবিলে এখন বর্ষার পানিতে চারিদিকে থৈথৈ করছে। কোথাও পা ফেলার তিল ঠাঁই নেই। দর্শনার্থীরা চলনবিলের সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার বেহুলা লক্ষীন্দারের বাড়ী ও জীবন্তকুপ, নিমগাছী জয়সাগর মৎস্য খামার, নয়াপুকুর, চলনবিল গর্ভে অবস্থিত ঘাসিদেওয়ানের মাজার, চলনবিল জাদুঘর, চাচকৈড় প্রীতম, প্রিয়ন্তী, সংগ্রহশালা ও জাদুঘর, শীতলাই রাজবাড়ী, তাড়াশ জমিদার বাড়ী,পাকপাড়া, হযরত শাহ মোকলেছুর, রহমান মাজার মসজিদ, নওগাঁ হযরতশাহ শরীফ জিন্দানী (রঃ) এর মাজার মসজিদ, হামকুড়িয়া দাখিল মাদরাসা, হাটিকুমরুল বনপড়ামহাসড়কের ৮ ও ৯নং ব্রিজে ভ্রমন পিপাসু মানুষগুলো উৎসাহ উদ্দীপনায় যন্ত্রচালিত নৌকা নিয়ে ভ্রমণ করছেন। আর প্রকৃতির সান্নিধ্য পেতে চলনবিলের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুটে চলেছেন আগত ভ্রমন পিপাসুরা। প্রতি বছরই বর্ষা মৌসুমে চলনবিলে প্রকৃতি দৃশ্য দেখারজন্য ছুটে আসে দূর-দূরান্ত থেকে নানা বয়সী ও পেশা শ্রেণীর মানুষ। আর এবার ঈদুল আজহার ঈদকে ঘিরে ভ্রমন পিপাসুরা ছুটে চলেছেন। চলনবিলের তাড়াশ উপজেলার কুন্দইল, গুরুদাসপুর এলাকা কিংবা চলনবিলের বুকচিড়ে হাটিকুমরুল বনপাড়া মহাসড়কের ৮, ৯ ও ১০নং ব্রিজে বিলের সৌন্দর্য অবলিলা দেখতে আসে। ঐতিহাসিক চলনবিলকে আরোও ঐতিহ্যমন্ডিত করতে বিগত ২০১০ সালে সিরাজগঞ্জে তাড়াশ উপজেলার সাথে গুরুদাসপুর উপজেলার সড়ক ও যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে। ১ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত তাড়াশ গুরুদাসপুর মৈত্রী সড়ক নির্মাণ করে দুই উপজেলার শতাধিক গ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে ঐতিহাসিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়। গুরুদাসপুর চাচকৈড় গুমানি নদী থেকে খুবজিপুর বিলসা হয়ে প্রায় ৯ কোটি টাকা ব্যয়ে বানগঙ্গা নদীতে দৃষ্টি নন্দিত দীর্ঘ মা, জননী সেতু ও তাড়াশ কুন্দইল বাজারপূর্ব পার্শে ব্রীজ ও কালভার্ট নির্মাণের মাধ্যমে মৈত্রী সড়কটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। বর্ষা  এলেই প্রতিদিন হাজার হাজার আঞ্চলিক ও বাহিরাগত ভ্রমণ পিপাসু পাগল মানুষ মা, জননী ও কুন্দইল সেতুতে ভিড় জমায়।

তাড়াশ উপজেলার পল্লিবিদ্যুতের পরিচালক সোহেল রানা জানান, চলনবিলের বর্ষায় ঈদুল আজহায় পিকনিক স্পর্ট গুলোতে যুবক কিশোর নববধূ সহ সব ধারনের মানুষ এখানে ভ্রমনের জন্য ছুটে আসে। বিলের সৌন্দর্য় অপরূপ লিলায়িত ছন্দে ভরে উঠে  এই ঈদ বেলায়। তাড়াশ রায়গঞ্জ সলঙ্গা আসনের এমপি মনোনয়ন প্রত্যাশী বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সাইফুল ইসলাম শিশির গতকাল চলনবিলে এসে উৎসব মুখর ভ্রমন পিপাসুদের ভীড় দেখে হাটিকুমরুল বনপাড়া মহাসড়কের ৮-৯ নং ব্রিজের স্পট ঐতিহাসিক পর্যটন কেন্দ্রে হিসেবে গড়ে তোলার জন্য সরকারের প্রতি আবেদন জানিয়েছেন। তিনি বলেন আমি এমপি হতে পারলে এই এলাকার মানুষদের সাথে নিয়ে গরীব দুঃখী অসহায় মানুষের জন্য উন্নয়নমূলক সব কাজ করব। কৃষি শিল্প গড়ে তুলতে হিমাগার প্রতিষ্ঠা, চলনবিলের মৎস্য শিল্প রক্ষায় কোল্ড স্টোর সহ সকল ধরনের উন্নয়ন কবর। অসহায় বঞ্ছিত মাজলুম মানবতার মুখে হাসি ফুটাতে সব ভূমিকা খোলা থাকবে।

 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ