ঢাকা, বৃহস্পতিবার 07 September 2017, ২৩ ভাদ্র ১৪২8, ১৫ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অসহায় রোহিঙ্গাদের পাশে  দাঁড়াতে এগিয়ে আসুন -সুপ্রিম কোর্ট বার

 

স্টাফ রিপোর্টার : মিয়ানমারে হত্যা ও নির্যাতনের শিকার রোহিঙ্গাদের সমস্যা সমাধানে জাতিসংঘসহ বিশ্ববাসীকে জোরোলো ভূমিকা রাখার আহবান জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশন। একইসঙ্গে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া অসহায়, ক্ষুধার্ত ও অসুস্থ রোহিঙ্গাদের সহযোগিতায় সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি। মিয়ানমার সরকারের প্রতি নারকীয় হত্যাযজ্ঞ বন্ধের আহ্বানও জানানো হয়েছে। 

গতকাল বুধবার দুপুরে রোহিঙ্গাদের ওপর চলমান নির্যাতন বন্ধের দাবিতে সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনের মিলনায়তনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই আহ্বান জানানো হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের সভাপতি এডভোকেট জয়নুল আবেদীন।

মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর নির্যাতন ও গুলীর মুখে প্রাণ নিয়ে পালিয়ে আসা অসহায় রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দানের জন্য বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানিয়ে এডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যু সমাধানে বাংলাদেশের কূটনৈতিক তৎপরতা আরও বাড়ানোর জন্য সরকারের নিকট আহ্বান জানাচ্ছি। সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশন মনে করে, জাতিসংঘের ইউনিভার্সেল ডিক্লারেশন অব হিউম্যান রাইটস-১৯৪৮ এবং ইন্টারন্যাশনাল ডিক্লারেশন অব হিউম্যান রাইটস-১৯৪৮ অনুযায়ী বাংলাদেশ একটি সদস্য দেশ। আরাকানদের হত্যাযজ্ঞ, লণ্ঠন, ধর্ষণ এবং মানবতার প্রতি যে নিষ্ঠুরতা চলছে এ অবস্থায় বাংলাদেশ সদস্য দেশ হিসেবে জাতিসংঘের মাধ্যমে চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখবে।

রোহিঙ্গাদের উপর চলমান অমানবিক নির্যাতন ও হত্যাযজ্ঞ বন্ধ না হলে অং সান সুচিকে দেয়া নোবেল পুরস্কার কিভাবে ফিরিয়ে নেয়া যায় সে বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে জাতিসংঘ ও বিশ্ব নেতৃত্বের প্রতিও আহ্বান জানান তিনি।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট নিতাই রায় চৌধুরী, এডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, এডভোকেট এবিএম ওয়ালিউর রহমান খান, সুপ্রিম কোর্ট বারের সহসভাপতি ওজিউল্লাহ, রফিকুল ইসলাম হিরু ও এডভোকেট তাহসীন আলী। সঞ্চালনা করেন সুপ্রিম কোর্ট বারের সম্পাদক মাহবুব উদ্দীন  খোকন।

মাহবুব উদ্দীন খোকন বলেন, পত্রিকা পড়লেই রোহিঙ্গাদের নৃশংস ঘটনা চোখে পড়ছে। মধ্যযুগের চেয়ে ভয়াবহ অবস্থা। জীবিত মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে, ছুড়ি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। মহিলাদের উলঙ্গ করা হচ্ছে। একটি গোষ্ঠীকে তারা নির্মূল করতে চায়। আমরা অনেক জাতি নিয়ে বসবাস করি। আমাদের দেশে বৌদ্ধ, হিন্দুসহ অনেক নৃগোষ্ঠী আছে। সবাইকে নিয়ে আমরা বসবাস করি।

তিনি বলেন, একাত্তরে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত আমাদের থাকতে দিয়ে নানাভাবে সহযোগিতা করেছে। রোহিঙ্গাদের বিষয়ে আমাদের সবার উচিত ঐক্যবদ্ধ হওয়া।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ