ঢাকা, মঙ্গলবার 12 September 2017, ২৮ ভাদ্র ১৪২8, ২০ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বিফ নাগেটস 

 

উপকরণ : গরুর মাংসের মিহি কিমা ২ কাপ, পেঁয়াজ কিমা ১ টেবিল চামচ, আদা কিমা ১ চা-চামচ, সয়াসস ১ টেবিল-চামচ, লালমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, কর্নফ্লাওয়ার আধা কাপ, লবণ স্বাদমতো, বেকিং পাউডার ১ চা-চামচ, টমেটো সস ২ টেবিল-চামচ, ডিম ৫টি, সয়াবিন তেল ২ টেবিল-চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল-চামচ, ব্রেডক্রাম ১ কাপ, তেল ভাজার জন্য, ময়দা ৩ টেবিল-চামচ।

প্রণালি : মাংসের কিমা, পেঁয়াজ, আদা, গোলমরিচ, সয়াসস, লবণ, ৩টি ডিম, লেবুর রস, টমেটো সস, লালমরিচ ও গোলমরিচ গুঁড়া, ২ টেবিল-চামচ তেল, কর্নফ্লাওয়ার, বেকিং পাউডার দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে স্টিলের অথবা অ্যালুমিনিয়াম ডিশে তেল লাগিয়ে মাখানো মাংস ১ ইঞ্চি পরিমাণ পুরু রেখে হাত দিয়ে চেপে চেপে দিতে হবে। 

ফুটন্ত পানির হাঁড়ির ওপরে ডিশ রেখে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ২৫-৩০ মিনিট স্টিমে রাখতে হবে। মাংস কাটার মতো শক্ত হলে চুলা থেকে নামিয়ে পছন্দমতো ডিজাইন করে কাটতে হবে। 

দুটি ডিম ফেটিয়ে ময়দা মিশিয়ে নিয়ে নাগেটস ডিমের গোলায় ডুবিয়ে ব্রেডক্রামে গড়িয়ে কিছুক্ষণ ফ্রিজে রেখে ডুবোতেলে সোনালি রং করে ভাজতে হবে।

কাশ্মীরি পোলাও 

উপকরণ : পোলাওয়ের চাল ৩০০ গ্রাম, কিশমিশ ৫০ গ্রাম, আপেল টুকরা ১০০ গ্রাম, কাজুবাদাম ১০০ গ্রাম, আনারস টুকরা ১০০ গ্রাম, লবণ ও চিনি স্বাদমতো, ঘি ৫০ গ্রাম, মাওয়া ৫০ গ্রাম, তেল ১০০ গ্রাম, গরম মসলা পরিমাণমতো।

প্রণালি : চাল ভালো করে পানিতে ধুয়ে সেদ্ধ করে নিন। অন্য একটি সসপ্যানে ঘি ও তেল ঢেলে তাতে গরম মসলা দিয়ে নাড়–ন। এরপর কিশমিশ, আপেল, আনারস, কাজুবাদাম দিয়ে নেড়ে নিন। এরপর লবণ, চিনি, মাওয়া ঢেলে এর ওপর সেদ্ধ করা চাল ঢেলে ভালোভাবে মিশিয়ে নাড়াচাড়া করে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ইলিশ মাছের মালাইকারি

উপকরণ : বড় ইলিশ মাছের পেটি সাদাসহ, ৮ টুকরা পেঁয়াজ কুচি, ১ কাপ আদা বাঁটা, ১ চা চামচ,  পোস্ত বাঁটা, ১ টেবিল চামচ, জিরা বাঁটা আধা চা চামচ, পেঁয়াজ বাঁটা ২ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ গুঁড়ো ১ চা চামচ, কাঁচামরিচ ৫-৬টি, লবণ পরিমাণ মতো, তেঁতুলের মাড় ১ টেবিল চামচ, তেল ১ কাপ, নারকেলের দুধ ২ কাপ, মশলার গুঁড়া আধা চা চামচ, চিনি স্বাদমতো।

প্রণালি : কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ ভেজে বেরেস্তা করে অর্ধেক বেরেস্তা উঠিয়ে রাখতে হবে। এবার কড়াইয়ে বেরেস্তার ভেতর এক কাপ করে সব বাটা ও গুঁড়ো মসলা কষিয়ে লবণ ও নারকেলের দুধ দিতে হবে।

ফুটে উঠলে মাছ দিতে হবে, ঝোল কমে এলে নারকেলের মিষ্টি বুঝে চিনি দিতে হবে। বেরেস্তা হাতে ভেঙে গুঁড়ো করে দিতে হবে।

তেঁতুলের মাড়, গরম মসলার গুঁড়ো, কাঁচামরিচ দিয়ে কিছুক্ষণ চুলায় রেখে নামাতে হবে।

মুরগির রুটি রোল

উপকরণ : মুরগির মাংস (হাড় ছাড়া) ২৫০ গ্রাম, আদা ও রসুনবাঁটা আধা চা-চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, জিরা আধা চা-চামচ, দই ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজবাঁটা ২ টেবিল চামচ, বেসিল লিফ গুঁড়া ১ টেবিল চা-চামচ, লুচির জন্য ময়দা ১ কাপ, লবণ পরিমাণমতো, সালাদের জন্য  টমেটো ২টি শসা ১টি পেঁয়াজ কুচি, ধনেপাতা, পুদিনাপাতা ও লেবু।

প্রণালি : মুরগির মাংস ধুয়ে ছোট ছোট টুকরা করে কেটে লবণ ও ২ টেবিল চামচ দই দিয়ে মাখিয়ে ১ ঘণ্টা রেখে দিন। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজবাটা এবং আদা ও রসুনবাটা দিয়ে ভাজুন। লাল হয়ে এলে জিরা দিয়ে মুরগির মাংসের মিশ্রণ ঢেলে দিন। ভাজা ভাজা করে নাড়তে থাকুন। মুরগির মাংস পানি ছেড়ে দিলে হালকা আঁচে কিছুক্ষণ রেখে দিন। যদি মাংস সেদ্ধ না হয়, তবে অল্প পানি দিতে পারেন। মুরগি মাখা মাখা অবস্থায় চুলা থেকে নামান।

এবার ময়দা, পানি ও লবণ দিয়ে খামির তৈরি করুন। রুটি বেলে তাওয়ায় সেঁকে নিন। টমেটো, শসা, ধনেপাতা, পুদিনাপাতা ও পেঁয়াজ কুচি করে লেবু ও লবণ দিয়ে সালাদ তৈরি করুন। দইয়ে লবণ দিয়ে ফেটে নিন। এবার ১টি রুটি নিয়ে মধ্যে রান্না মুরগির মাংস দিয়ে তার ওপর সালাদ, দই দিয়ে দিন। এবার রুটি ভাঁজ করে টুথপিক দিয়ে আটকে দিন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ