ঢাকা, শনিবার 16 September 2017, ০১ আশ্বিন ১৪২8, ২৪ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রোহিঙ্গাদের নিয়ে সরকারি দলের লোকজন ব্যবসা করছে -ফারুক

 

স্টাফ রিপোর্টার : রোহিঙ্গাদের নিয়ে সরকারি দলের লোকজন ব্যবসার করছে মন্তব্য করে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক বলেছেন, বিএনপির ত্রাণ কার্যে বাধা দিয়ে আওয়ামী লীগ ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসক যা করেছেন তা অত্যন্ত নিন্দনীয়। তারা যে কায়দায় বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গুম, খুন, নির্যাতন করছে, ঠিক একই কায়দায় কক্সবাজারে বিএনপির ত্রাণ কার্যে বাধা দিয়েছে। গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এসব অভিযোগ করেন। 

জয়নাল আবদীন ফারুক প্রশ্ন রেখে বলেন, বিএনপি কেন রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিতে পারবে না, রোহিঙ্গারা কি আওয়ামী লীগ ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের আত্মীয় যে ত্রাণ শুধু তারাই দিবে? 

রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তা নিশ্চিত করতে সর্বদলীয় বৈঠকের আহ্বান জানিয়ে ফারুক বলেন, সরকার নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের যে আশ্রয় দেবে, আমরা এখন আর বিশ্বাস করি না। আমরা জানতে পেরেছি রোহিঙ্গারা শরণার্থী শিবিরে বিভিন্ন ধরনের নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। তাই আমাদের দাবি রোহিঙ্গাদের খাদ্য, নিরাপত্তা, বাসস্থান নিশ্চিত করার জন্য সর্বদলীয় বৈঠকের আয়োজন করা হোক।

নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের নিয়ে বিজিবি ও কোস্টগার্ড ব্যবসা করছে, মানববন্ধনে এমন অভিযোগ করেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল। তিনি বলেন, রোহিঙ্গারা নৌকায় পার হওয়ার পর টাকা না দিলে বিজিবি নৌকায় আগুন ধরিয়ে দিচ্ছে। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তাবু টানিয়ে চাঁদা নিচ্ছে। মহিলাদের গায়ের গহনা খুলে নিচ্ছে।

 রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ বন্ধের দাবিতে তারেক জিয়া সাইবার ফোর্স নামের একটি সংগঠন এই মানববন্ধনের আয়োজন করে। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ফাতেমা খানমের সভাপতিত্বে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য রমেশ দত্ত, রফিক শিকদার, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক পলাশ মণ্ডল, ছাত্রদলের দফতর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ