ঢাকা, সোমবার 18 September 2017, ০৩ আশ্বিন ১৪২8, ২৬ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

'নায়িকাদের রূপ-যৌবনকে পুঁজি করে ব্যবসা চলে, কাজ শেষে থুথুর মত ফেলে দেয়'

সংগ্রাম ডেস্ক : 'এরা এতো বোকা কেন হয়! এরা কি বোঝে না তাদের রূপ-যৌবনকে পুঁজি করে ব্যবসা চলে, রমরমা ব্যবসা! কাজ শেষ তো, থুথুর মত ফেলে দেয়! অথচ আজকের নায়িকাণ্ডগায়িকারা গর্ব করে দুনিয়া কাঁপাচ্ছে। কাল কী হবে, কোনো হুঁশ আছে? সিনেমাপাড়ায়, মিডিয়াপাড়ায় ক্যামেরার সামনে-পেছনে কতরকম নোংরামি চলে তা তো সবার কম বেশি জানা।' শীর্ষনিউজ। 

কথাগুলো এক সময়রে আলোচিত অভিনেত্রী নাজনিন আক্তার হ্যাপির। যিনি বছরখানেক আগে বিনোদন জগত থেকে বিদায় নিয়েছেন। এখন তিনি আমাতুল্লাহ নামে পরিচিত হওয়ার চেষ্টা করছেন। 

গত ২৫ সেপ্টেম্বর হ্যাপি তার ফেসবুকে দেয়া স্টাটাসে এসব কথা বলেন। নিম্নে হ্যাপির পূর্ণ স্টাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো- 

 বেশিরভাগ নায়িকা, গায়িকাদের শেষ বয়সের পরিণতি "অর্থাভাবে চিকিৎসা হচ্ছে না" টাইপ শিরোনামে নিউজ! এছাড়া নায়িকা গায়িকারা অর্থের অভাব থাকুক বা না থাকুক তাদের জন্য পারিশ্রমিক হিসাবে জাহান্নাম তো থাকছেই (তওবা না করলে)! 

এরা এতো বোকা কেন হয়! এরা কি বোঝে না তাদের রূপ যৌবনকে পুঁজি করে ব্যবসা চলে, রমরমা ব্যবসা! কাজ শেষ তো, থুথুর মত ফেলে দেয়! অথচ আজকের নায়িকা-গায়িকারা গর্ব করে দুনিয়া কাঁপাচ্ছে। কাল কি হবে, কোনো হুঁশ আছে? 

সিনেমাপাড়ায়, মিডিয়াপাড়ায় ক্যামেরার সামনে-পেছনে কতরকম নোংরামি চলে তা তো সবার কম বেশি জানা। আজকের এই রূপ কয়দিন? এই রূপ দিয়ে কোটি কোটি পুরুষের রাতের ঘুম হারাম করাই শুধু সম্ভব, একজন জান্নাতি জন্ম দেওয়া সম্ভব নয়! 

আমিও ছিলাম তোমাদের কাতারে! রূপ-যৌবন তোমাদের চেয়ে কম ছিল না। জান্নাত পাবো কিনা জানি না। তবে জাহান্নামের দিকে নিয়ে যাওয়ার এই জঘন্য অন্ধকার পথ থেকে আল্লাহ আমাকে ফিরিয়ে এনেছেন আলহামদুলিল্লাহ! এখন তাই আশা করার সাহস করি, হয়ত আল্লাহ জাহান্নাম থেকে হেফাযত করবেন! 

যারা তোমরা মিডিয়া-ফিল্ম নিয়ে পড়ে আছো, তোমরা স্বীকার করো বা না করো, এটা যে কত নোংরা জগত তা তোমরা ভালমতই জানো। এখনো সময় আছে, ফিরে আসো! অবশ্যই আল্লাহ তায়ালা তোমাদের পুরস্কৃত করবেন ইনশাআল্লাহ!

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ