ঢাকা, সোমবার 18 September 2017, ০৩ আশ্বিন ১৪২8, ২৬ জিলহজ্ব ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণে সরকারকে সহযোগিতা করতে হবে -চরমোনাই পীর

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই বলেছেন, রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে এখনও অনেক রোহিঙ্গা মুসলমান মানবেতর জীবন যাপন করছে। তাদের কাছে এখনও সরকারি-বেসরকারী ত্রাণ কমিটি পৌঁছতে পারেনি। তাই রোহিঙ্গাদের পাশে দাড়াতে যারা ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে যাচ্ছে তাদের ত্রাণ বিতরণে সরকারকে সহযোগিতা করতে হবে। রোহিঙ্গারা দেশ ছেড়ে জীবন বাঁচানোর জন্য বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে মানবিক কারণেই তাদেরকে বাঁচতে দিতে হবে।
গতকাল রোববার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন, বাঁচার জন্য বাড়ি-ঘর, খাবার, পোশাক, খাবার পানি, চিকিৎসা সেবা, পয়োনিস্কাষণ। এসব বিষয়ে সরকারকে সেনাবাহিনীর সহায়তা নিতে হবে। নতুবা দালাল, সুবিধাভোগী এবং সরকারি দলের সুবিধাবাদীরা রোহি্গংাদের প্রতাড়িত করে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিতে পারে। তিনি বলেন, ইসলামী আন্দোলন রোহিঙ্গাদের জন্য ১০টি টিমে ১৩দিন যাবৎ অব্যাহত ত্রাণ তৎপরতা, ঘর-বাড়ী নির্মাণ, বিশুদ্ধ পানির জন্য টিউবওয়েল, বাথরুম ইত্যাদি নির্মাণে কাজ করে যাচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় ১৯ সেপ্টেম্বর রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করবো, ইনশাআল্লাহ।
২১ সেপ্টেম্বর ঢাকাস্থ জাতিসংঘ কার্যালয় অভিমুখে গণমিছিল সফলের আহ্বান: মিয়ানমারের ইতিহাসের সবচেয়ে জঘন্য বর্বরতা, হত্যাযজ্ঞ ও নারী-শিশু নির্যাতন বন্ধের দাবিতে ২১ সেপ্টেম্বর ঢাকাস্থ জাতিসংঘ কার্যালয় অভিমুখে গণমিছিল সফলের লক্ষ্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিভিন্ন কর্মসুচি গ্রহণ করেছে। সে লক্ষ্যে গতকাল সংগঠনের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের উদ্যোগে সকল সহযোগি সংগঠনসমূহের যৌথ সভা মাওলানা ইমতিয়াজ আলমের সভাপতিত্বে পুরানা পল্টনস্থ আএবি মিলনায়নে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংগঠনের মহাসচিব অধ্যক্ষ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেন, মিয়ানমারের মুসলমান নারী, পুরুষ ও শিশুদের উপর অং সান সুচির সামরিক জান্তাদের জুলুম-নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণ ইতিহাসের সকল জুলুম নির্যাতনকে হার মানিয়েছে। এমন বর্বরতা বিশ্ববাসী কখনো দেখেনি। রোহিঙ্গা মুসলমানদের বাঁচাতে হবে। হিংস্র হায়েনাদের কঠোরহস্তে জবাব দিতে হবে। আরাকান স্বাধীন করাই মুসলমানদের এখন বড় কাজ। এ লক্ষ্যে বিশ্বমুসলিম তাদের স্ব স্ব সামরিকদের প্রস্তুত করে আরাকান স্বাধীনতা সংগ্রামের সুচনা করতে হবে। তিনি যে কোন মূল্যে ২১ সেপ্টেম্বর ঢাকাস্থ জাতিসংঘ কার্যালয় অভিমুখে গণমিছিল সফলের আহ্বান জানান। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ